ভাইরাল ভিডিও

গঙ্গায় ধরা পড়ল বিরল প্রজাতির ভয়ংকর মাছ! আতঙ্কে ভারতীয় বিজ্ঞানীরা

যে মাছের নাম শুনলে আঁতকে ওঠে সাধারণ মানুষ সেই পিরানহা মাছেরই দেখা মিলেছে গোদাবরীর সহ বেশ কয়েকটি নদীতে। বিজ্ঞানীরা অবশ্য জানিয়েছে এই মাছগুলিকে দক্ষিণ আফ্রিকার থেকে অতি গোপনে আমদানি করা হয়েছিল একুরিয়ামে রাখার জন্য কিন্তু পরে সেগুলিকে জলে ফেলে দেওয়া হয় সেগুলিরই নিদর্শন মিলছে এখন বিভিন্ন নদীতে।

গবেষণায় দেখা গেছে এর মতন কামড়ানোর শক্তি নাকি ডাইনোসরের পর্যন্ত ছিল না। ওজনে এগুলো তিন কেজি পর্যন্ত হতে পারে তবে এই মাছের 30 টি প্রজাতির খোঁজ পাওয়া গেছে আরো বেশ কয়েকটির হদিশ এখনো অধরা। পিরানহা 320 PSI বাইট ফোর্সে কামড়ায় যা ছাপিয়ে যায় ডাইনোসর কেও। এই মাছের যে ভয়ংকর দাঁত রয়েছে তা ছবিতে দেখেই অনেকে আঁতকে ওঠে। যেখানে এই মাছের উপস্থিতি রয়েছে সেখান থেকে শতহস্ত দূরে থাকে সাধারণ মানুষ।

1978 সালে মুক্তি পাওয়া পিরানহা নামক ছবিতে পিরানা মাছের যে দৃশ্য সবার সামনে উঠে এসেছিল তা থেকেই তার সম্পর্কে একটি ধারণা তৈরি হয়ে গেছিল। তবে এই মাছ সত্যি করেই বেশ ভয়ংকর ।যেখানে এই মাছ থাকে সেখানে অন্য কোন মাছ বা জলজ প্রাণী বাঁচতে পারে না, কার্যত বলা যায় এই ভয়ংকর মাছটি সবাইকে মেরে দেয়। তবে এই চরম হিংস্রতার কারণে বেশ কয়েকদিন আগেই আইনতভাবে এই মাছ চাষ করা বন্ধ করে দেয়া হয়েছিল। গঙ্গাবক্ষেও এর নিদর্শন মিলছে দেখে বন্য বিজ্ঞানীদের কপালে চিন্তার ভাঁজ পরেছে।

Related Articles