‘কাঁচা বাদামের’ পর ভাইরাল মুর্শিদাবাদের বেলুন কাকু, রইল ভিডিও

Balloon Sellers Video

বর্তমান সময়ে অধিকাংশ মানুষই সোশ্যাল মিডিয়াকে বিনোদনের মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার করে থাকেন‌। বিভিন্ন স্থানের বিভিন্ন রকম ঘটনা নেট দুনিয়ায় আকছার ভাইরাল হয়ে থাকে। নেটিজেনদের একাংশ যেমন সোশ্যাল মিডিয়া শুধুমাত্র উপভোগ করে থাকেন, তেমনই একাংশ উপভোগের বিভিন্ন উপাদান জোগান দিয়ে থাকেন। পারিপার্শ্বিক বিভিন্ন ঘটনা, ব্যতিক্রমী দৃশ্য বা অন্যান্য কিছু তাঁরা সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে থাকেন।

সেই রকম কোনো ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট হলে তা খুব কম সময়ের মধ্যেই ভাইরাল হয়ে থাকে। ঠিক তেমনভাবেই বেশ কিছু সপ্তাহ আগে বীরভূম জেলার দুবরাজপুর ব্লকের প্রত্যন্ত গ্রাম লক্ষীনারায়ণপুরের এক সাধারণ বাদাম বিক্রেতা ভুবন বাদ্যকরের (Bhuban Badyakar) ভিডিও ভাইরাল হয়েছিল। এই বাদাম বিক্রেতা নিজের ব্যবসার কৌশল হিসেবে নিজেই গান তৈরি করে সেই গান রাস্তায় ঘুরে ঘুরে গেয়ে বাদাম বিক্রি করতেন। তাঁর এই গান ‘কাঁচা বাদাম’ (Kancha Badam) নামে পরিচিতি লাভ করে। বহু মানুষ এই গানের সাথে নাচ করে বা নিজের মতো করে গানটি গেয়ে ভিডিও পোস্ট করতে থাকেন। এককথায় এই গান ট্রেন্ডিং‌হয়ে যায়। সাধারণ মানুষদের পাশাপাশি অনেক সেলিব্রিটিও এই ট্রেন্ডে গা ভাসিয়েছেন। এমন কী সমগ্র ভারতবর্ষ ছাড়াও আন্তর্জাতিক স্তরে ‘কাঁচা বাদাম’ গান পৌঁছে গিয়েছে।

কিছুদিন আগে বাদাম বিক্রেতা ভুবনের মতো এক পেয়ারা বিক্রেতাও ভাইরাল হয়েছিলেন। তবে তাঁর পরিচয় জানা জানা যায়নি। সম্প্রতি তেমনভাবেই এক বেলুন বিক্রেতার ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। তবে এই বেলুন বিক্রেতা গানের জন্য নয়, ছড়া কেটে বেলুন বিক্রির জন্য পরিচিত হয়েছেন। ভাইরাল হ‌ওয়া ভিডিও থেকে জানা গিয়েছে এই বেলুন বিক্রেতার নাম আফতাব ফকির। তিনি মুর্শিদাবাদ জেলার ডোমকুল থানার টিকটিকি পাড়ার বাসিন্দা।

ছড়া কেটে তিনি বলেছেন,”বেলুন বেলুন বেলুন/ ভালো ভালো বেলুন/ ডোমকুলের বেলুন/ কে নেবেন বলুন/ নীচে পাঁচ, পাখি পনেরো/ তারপর দশ/ বেলুনের বশ/ লাল আর সাদা বেলুন/ কোনটা নেবেন বলুন/ টিকটিকি পাড়ায় বাড়ি/ মারবো নাকো ঝাড়ি/ আসেন তাড়াতাড়ি/ যেতে হবে বাড়ি।” এর সাথে তিনি যোগ করেছেন,”বহু বেলুন গেছে ফেটে/খদ্দের আসো হেঁটে/ বেলুনে নাই তাড়া, বেলুন নেবে কারা/ বেলুন না নিলে আমার কাজ সারা/ বেলুনের ওপর বসানো আছে পাখি/ বেলুন দিবো না কো বাকি/ দিলে পরে বাকি, আমি পড়ে যাবো ফাঁকি/ সকালবেলায় ভাত খেয়েছি বাসি/ তাও মুখে আছে হাসি/ তারপরে খেয়ে আছি রুটি/ বেলুন বেচায় করবো না কো ছুটি।” আফতাব ফকিরের ছড়া কাটা এরপরেও শেষ হয়নি, তিনি আরো বেশ কিছু সময় ধরে ভিডিওতে ক্রমাগত ছড়া বলেছেন। বেলুন বিক্রেতার এমন প্রতিভা দেখে নেটিজেনরা স্বাভাবিকভাবেই তাজ্জব হয়ে গিয়েছেন। ঝড়ের বেগে এই ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে চলেছে। বেলুন বিক্রেতা আফতাব ফকিরের প্রশংসায় নেটিজেনরা সকলেই প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়েছেন।