ভাইরাল ভিডিও

অসাধারন গান গেয়ে সকলকে চমকে দিলেন এক গাড়ি মেকানিক যুবক, প্রশংসার প্রশংসার নেট দুনিয়ায়

সময়ের স্রোতে প্রতিনিয়ত মানুষ আপডেট হচ্ছে। আর মানুষকে আপডেট করার প্রধান উপাদান এখন হয়ে দাঁড়িয়েছে মোবাইল ফোন, যার দ্বারা সোশ্যাল মিডিয়ার সঙ্গে খুব সহজেই সংযোগ হচ্ছে আমাদের। যেখানে গোটা দুনিয়া ঘোরার পাশাপাশি বিভিন্ন দক্ষ প্রতিভার সম্মুখীন হচ্ছি আমরা। চোখের সামনে উঠে আসছে নানা রকমের নাচ, গানের সম্ভার। যেকোনো মুহূর্তে আপনি নিজের প্রতিভাকে কাজে লাগিয়ে বিশ্ব রেকর্ড গড়ে তুলতে পারেন সবাই।

এমন লোভেই মানুষ এখন বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমগুলোতে নিজেদের নানান ধরনের ভিডিও প্রকাশ করছে। এতে কেউ সহজেই হয়ে যাচ্ছে ভাইরাল, আবার কেউবা মুখ থুবরে পরে যাচ্ছেন ব্যর্থতার কাতারে। আর এখন আট থেকে আশি সবাই নিজস্ব দক্ষতার জোরে হয়ে যাচ্ছেন জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া ইউজার। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরালের তালিকায় সংযুক্ত হল আরেকটি নতুন ভিডিও! কথায় আছে, প্রতিভা থাকলে সেই প্রতিভার জয় একদিন হবেই।

সম্প্রতি একটি সুন্দর ভিডিও ভাইরাল হল ফেসবুকে। যেখানে দেখা যাচ্ছে, একটি ছেলে গান করছেন একটি হিন্দি চলচ্চিত্রের গান। অসাধারণ দক্ষতার সঙ্গে। গানটি শুনে কারুর বোঝার উপায় নেই যে, সেই জনপ্রিয় গানটির গায়ক এবং এই দেশীয় ছেলেটি এক নয়। তাঁর গলার কণ্ঠ শুনে মনে হচ্ছে, যেন তিনিই এই গানটির গায়ক ছিলেন। আসলে, গরিব ছেলেটির অসাধারণ সুর দেখে মনে হচ্ছে ভীষণ দক্ষ তিনি গানে।

কিন্তু মোটেও তাই নয়, এই ছেলেটি সাক্ষাৎকারে বলেন, “তিনি এই গানটি কোন ছবির সেটাও জানেন না। ছোটবেলা থেকেই অনেক সংগ্রাম করে বড় হয়েছেন তিনি। একটা টিভি ছিল না তাঁর। রেডিও শুনে তিনি একাধিক গান শিখেছেন। এমনকি তিনি একটি গাড়ির গ্যারাজে কাজ করেন। যাতে তাঁর মাসে বেশি আয়ও হয়না। প্রায় ২০ জনের যৌথ পরিবারে তাঁর জন্ম। করোনা মরসুমে তাঁদের তেমন খাবারও জুটত না। তাঁর বাড়ি আসামের কোনও একটি জেলায়। নাম তাঁর মহম্মদ সিরাজ।”কোনও প্রশিক্ষণ ছাড়াই গানের ওপর তাঁর অসাধারণ দক্ষতার কথা সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে এখন জাহির হয়ে গিয়েছে গোটা বিশ্বে। এমনকি তাঁর প্রার্থনা যদি মুম্বই থেকে তিনি গানের জন্যে কল পান তাহলে তাঁর জীবন দাঁড়িয়ে যাবে। তবে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে এখন গায়ক-গায়িকা তৈরি হওয়া ট্রেন্ডিং-এর তালিকায় পৌঁছে গিয়েছে। যেমন, ইন্টারনেটের মাধ্যমে রানু মন্ডল এবং ভুবন বাদ্যকর সেরা গায়কে পরিনত হয়েছেন তেমনি আশা করা যায় আগামীদিনে এই ছেলেটিও তাঁর কন্ঠের জোরে যোগ্য সম্মান পাবেন।

Related Articles