ভুলেও দুধ চায়ের সাথে খাবেন না এই জিনিস টি হতে পারে মহা বিপদ, রইল বিস্তারিত

Health Care Treatment

পৃথিবীতে চা প্রেমির সংখ্যা যে নেহাত কম নয়। আর যতই দিন যাচ্ছে এই সংখ্যা যেন ততই বেড়ে উঠছে। বিশেষ করে বাঙালিদের ক্ষেত্রে সকালে ঘুম থেকে উঠে হাতের সামনে এক কাপ সুগন্ধি লিকার চা অথবা ঘন দুধ চা না পেলে হয়তো সকালে ঘুমটা ঠিকঠাক ভাঙতে চায়না। আবার কাজের চাপ থেকে শুরু করে সন্ধ্যার আড্ডা সবেতেই চা মাস্ট। আর বর্তমান যুগের সাথে পাল্লা দিয়ে চায়ের গুরুত্ব বাড়িয়ে তোলার জন্য তৈরি হয়েছে বিভিন্ন ধরনের চা। এই যেমন চকলেট চা, তন্দুরী চা, মালাই চা এমনকি নলেন গুড়ের চা পর্যন্ত। কিন্ত আয়ুর্বেদিক শাস্ত্রে গুড়ের তৈরি চা খেলে নাকি হতে পারে চরম বিপদ! এমনটাই বলেছেন আয়ুর্বেদ বিশেষজ্ঞ ডাঃ রেখা রাধারানী।

Health Care Treatment

বর্তমান যুগে শরীর ফিট ও সুস্থ রাখার জন্য বারবার চিনি ছাড়া চা খাওয়ার পরামর্শ দেন চিকিৎসকেরা। কেননা চিনি ছাড়া চায়ে রয়েছে প্রচুর গুন। তবে, যারা একদমই মিষ্টি ছাড়া চা খেতে অভ্যস্ত নন তাদের দেখা যায় চিনির বদলে মধু কিংবা গুড় ব্যবহার করতে। আর চায়ের সাথে গুড়ের যোগ খুবই উপকারী, বিশেষত গ্রীষ্মকালে। কিন্তু আয়ুর্বেদিক অনুসারে এটি ত্রুটিপূর্ন সংমিশ্রন। এটি শোনার পর আশা করি সকলের মনে প্রশ্ন জেগেছে কেন? চলুন এবিষয়ে জেনে নিন বিস্তারিত ভাবে-

Health Care Treatment

প্রাচীন আয়ুর্বেদিক মতে, খাবার খাবারের সংমিশ্রনে আসলে তা হজম হয়না। তাই গুড়ে রয়েছে ভিটামিন, ফসফরাস, ম্যাগনেশিয়াম, ফসফরাস এবং এই গুড় যদি দুধে মিশ্রিত করা হয় তাহলে চরম বিপদ ঘটবে। গুড়ে প্রচুর উপকারিতা থাকলেও তা দুধে মেশানো উচিত নয়। ডঃ রাধামণি বলেছেন,আয়ুর্বেদ অনুযায়ী প্রতিটি খাবারে নিজস্ব গুন, শক্তি ও স্বাদ রয়েছে। আর একদিকে দুধ গরম অন্যদিকে গুড় ঠান্ডা, তাই খাবারের ভুল সংমিশ্রনের ফলে আমের সৃষ্টি হতে পারে। তবে যারা চায়ে মিষ্টির জন্য ঠিক উপাদান খুজছেন তাদের বলে রাখি, আয়ুর্বেদিক বিশেষজ্ঞরা এক্ষেত্রে মিছরির ব্যাবহার করতে বলেছেন। কেননা চিনির মিছরি ঠান্ডা হলেও কোন পার্থক্য তৈরী করে না।

Health Care Treatment

এছাড়াও বেশ কয়েকটি উপাদান রয়েছে যা স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর। যেমন- কলা ও দুধ, দই ও পনির, ঘিত ও মধু, মাছ এবং দূধ। এগুলি খেলে শরীরে বিভিন্ন রকম সমস্যা, শরীর ফুলে যাওয়া, ত্বকের ব্যাধি ইত্যাদি রোগ তৈরি হতে পারে। তাই খাবার সময় এগুলি মাথায় রেখে সাবধানে চলুন।