ভিভো নিয়ে এলো নতুন চমক কয়েক মিনিটেই হবে ফুল চার্জ, রইল বিস্তারিত

Fast Charging

তাড়াহুড়ো করে ফোনে চার্জ দিতে বেশি সময় পান না? কোনো চিন্তা নেই। শীঘ্রই আসতে চলেছে বড়োসড়ো সমাধান। বিশ্বের স্মার্টফোন প্রস্তুতকারক সংস্থা গুলির মধ্যে অন্যতম Vivo এবার সেলফি প্রিয় মানুষদের জন্য আরও একটি চমকপ্রদ সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে। সূত্রের মান্যতা অনুযায়ী, 100W ফাস্ট চার্জারের বদলে স্মার্টফোন প্রেমীদের মধ্যে সাড়া ফেলতে 200W ফাস্ট চার্জার নিয়ে কাজ করতে শুরু করেছে ফোন প্রস্তুতকারক সংস্থা Vivo। চায়না ফোন প্রস্তুতকারক Vivo-র তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে, 200W চার্জিং সহ অ্যাডাপ্টারটি 120W, 80W এবং 66W পাওয়ারের সাথেও কাজ করতে পারবে।

Fast Charging

আপনাদের জানিয়ে রাখি, এখনো পর্যন্ত বাজারে সর্বোচ্চ 150W ফাস্ট চার্জিং ফোন উপলব্ধ ছিল। তবে এবার Vivo-র কল্যাণে 200W ফাস্ট চার্জিং-এর ফোনের স্বাদ গ্রহণ করতে চলেছে সাধারণ গ্রাহকরা। ইতিপূর্বে Vivo-র তরফ থেকে জানানো হয়েছিল যে, তারা 100W ফাস্ট চার্জিং নিয়ে কাজ করছে, তবে বাজারের চাহিদাকে মান্যতা দিয়ে স্মর্টফোন প্রেমীদের 200W ফাস্ট চার্জিং-এর ফোন ব্যবহারের আনন্দ দিতে চলেছে তারা।

Fast Charging

সূত্রের খবর অনুযায়ী, একজন চাইনিজ ডিপস্টার একটি সংবাদমাধ্যমে Vivo-র 200W সম্পন্ন চার্জার সম্পর্কে তথ্য দিয়েছেন। সেখানে বলা হয়েছে, কোম্পানি 100W চার্জিং-এর পরিকল্পনা বাতিল করে 200W সম্পন্ন চার্জার নিয়ে কাজ করার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। নতুন এই চার্জার 20V পাওয়ারের সাথে সাথে 200W ফাস্ট চার্জিংয়ে সক্ষম হবে। অর্থাৎ মাত্র কয়েক মিনিটেই ফুল চার্জ হবে ফোন, এমনটাই দাবি সংস্থার।

তবে এই ফোন ব্যবহারে কতটা উপযোগী হবে তা নিয়ে ইতিমধ্যে একাধিক প্রশ্ন উঠছে স্মার্টফোন প্রেমীদের মধ্যে। 200W ফাস্ট চার্জিং-এর সুবিধা থাকলেও ফোনটি মাত্র 4000mAh ব্যাটারির সাথে বাজারে লঞ্চ হতে চলেছে। যেখানে বর্তমানে একাধিক ফোন নির্মাতা কোম্পানি 5000mAh ব্যাটারির সঙ্গে ফোন লঞ্চ করছে সেখানে Vivo-র এই প্রচেষ্টা কতটা সফলতার মুখ দেখবে তা নিয়ে উঠেছে একাধিক প্রশ্ন। তবে, 200W ফাস্ট চার্জিং স্মার্টফোন প্রেমীদের নতুন অভিজ্ঞতার সাথে পরিচয় ঘটাবে একথা নিশ্চিত।