বুলেট প্রেমীদের জন্য সুখবর! মধ্যবিত্তের কথা মাথায় রেখে শীঘ্রই লঞ্চ হতে চলেছে Royal Enfield Scram 411

Royal Enfield

ভারতের বাজারে মোটরসাইকেলের কোম্পানি হিসেবে ব্যাপক জনপ্রিয়তা রয়েছে রয়্যাল এনফিল্ড এর। তাঁদের ক্লাসিক ৩৫০ বাইকটি প্রত্যেকের কাছেই একটু আলাদা ধরনের সম্মান পায়। সম্প্রতি বাজাজ এবং ট্র্যাম্প কোম্পানির সাথে প্রতিযোগিতায় নেমে রয়্যাল এনফিল্ড একাধিক নতুন নতুন বাইক লঞ্চ করছে। খুব শীঘ্রই বাজারে আসতে চলেছে এই কোম্পানির ৪ থেকে ৫ টি নতুন বাইক। তারমধ্যেই রয়েল এনফিল্ড Scram 411 এর লঞ্চের জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে সকল বাইকপ্রেমীরা।

এবার অবশেষে অপেক্ষার অবসান হবে। চলতি বছরের শুরু থেকেই এই রয়্যাল এনফিল্ড Scram 411 এর লঞ্চের অপেক্ষায় চলছে। অবশেষে কোম্পানির নির্দেশমত, আগামীকাল অর্থাৎ ৭ মার্চ, সোমবার এই নতুন অ্যাডভেঞ্চার ক্যাটাগরির মোটরসাইকেল ভারতের বাজারে লঞ্চ করতে চলেছে। মোটামুটি সকলেই জানেন, এই Scram 411, রয়্যাল এনফিল্ড হিমালয়ানের তুলনায় কম শক্তিশালী হবে এবং সেইসাথে এই বাইকের দাম একেবারে সকলের সাধ্যের মধ্যেই থাকবে।

নতুন এই Scram 411 বাইকটির জন্য ভারতীয় গ্রাহকরা দীর্ঘদিন ধরেই অপেক্ষা করেছিল। আসলে এই বাইকটি যেমন একদিকে অফরোড জায়গায় চলতে পারবে ঠিক তেমনভাবে শহরেও এই বাইকের পারফরম্যান্স দুর্দান্ত হবে। সবচেয়ে বড় কথা এই বাইকের মূল্য। সাধ্যের মধ্যে দামে এমন ধামাকা অফার হয়তো অন্য কোন বাইক দিতে পারবে না। তবে জানিয়ে রাখা ভাল, রয়্যাল এনফিল্ড হিমালয়ানের থেকে এই বাইকে বেশকিছু কমতি রয়েছে। হিমালয়ানের সামনের লম্বা উইন্ড স্কিনের জায়গায় Scram 411 এ অপেক্ষাকৃত ছোট উইন্ড স্কিন দেখা যাবে। এছাড়া হিমালয়ানে বাইফারকেটেড সিট ও লম্বা সাসপেনশন দেখা যেত। কিন্তু Scram 411 সিঙ্গেল পিস সিট ও ছোট সাসপেনশন দেখা যাবে। এছাড়া এই বাইকে সামনেতে ১৯ ইঞ্চি এবং পিছনে ১৭ ইঞ্চির চাকা ব্যবহার করা হয়েছে যা হিমালয়ানের তুলনায় অপেক্ষাকৃত ছোট।

মনে করা হচ্ছে, নতুন Scram 411 বাইকে LS410 সিঙ্গেল সিলিন্ডার, এয়ার কুলড, ৪ স্ট্রোক ইঞ্জিন ব্যবহার করা হবে যা একটি ৪১১ সিসির ইঞ্জিন হবে। এই ইঞ্জিন ২৪.৩ bhp পাওয়ার উৎপন্ন করতে পারবে। এরপর আসা যাক, বাইকটির দামের কথায়। মনে করা হচ্ছে, ভারতীয় গ্রাহকদের কথা মাথায় রেখে কোম্পানি এই বাইকটিকে মাত্র ১.৯০ লাখ টাকায় মার্কেটে লঞ্চ করবে। এই দামে এমন বাইক সত্যিই অবিশ্বাস্য বলা যেতে পারে। এবার বাইকটি লঞ্চ হলে ভারতীয় গ্রাহকদের কতটা পছন্দের হতে পারে, সেটা দেখা শুধুমাত্র সময়ের অপেক্ষা।