টেক নিউজ

রয়্যাল এনফিল্ডের স্পেসিফিকেশনে বাজারে আসছে ২৫০ ও ৫০০ সিসি ক্ষমতায় দুর্দান্ত বাইক, দামেও কম

বর্তমানে পরিস্থিতি এমন হয়েছে যে প্রত্যেকটি কোম্পানি কম দামের মধ্যে দুর্দান্ত স্পেসিফিকেশন এর মাধ্যমে বাইক এবং স্কুটার তৈরি করার জন্য প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে। এখনকার যুগে একটি বাইক এবং স্কুটি সকলের প্রয়োজন, এবং সকলেই চাইছেন কম দামের মধ্যে দারুন স্পেসিফিকেশন বিশিষ্ট একটি স্কুটি অথবা বাইক কিনতে। সম্প্রতি জাপান থেকে কিছু খবর আসছে যা অনেক ক্ষেত্রে ভারতের বাইকের জগতকে একেবারে পাল্টে যেতে পারে।

সম্ভাবনা রয়েছে হণ্ডা কোম্পানিটি তাদের বাইকের রেঞ্জকে আরো প্রগতিশীল করে তাদের প্রোফাইলে যুক্ত করতে চাইছে আরও কিছু নতুন বাইকের মডেলকে। এর মধ্যে অন্যতম হলো রেবেল ক্রুজার প্লাটফর্ম। এখনো পর্যন্ত এই ব্যাপারে কোনো আনুষ্ঠানিক ঘোষণা না করা হলেও, ইন্টারনেটে যে সমস্ত তথ্য এই মুহূর্তে উপলব্ধ, সেগুলি থেকে স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে, পুরনো ডিজাইনের কিছু হণ্ডা CL সিরিজের মোটরসাইকেলের একটি নতুন ভার্সন হতে চলেছে এই নতুন বাইকগুলি।

এই মুহূর্তে ভারতে হণ্ডা যে সমস্ত বাইক বিক্রি করে তার মধ্যে একটি স্ক্র্যাম্বলার বাইক রয়েছে, যেটি হল CB350RS। নতুন দুটি বাইক অর্থাৎ স্ক্র্যাম্বলার ২৫০ সিসি এবং ৫০০ সিসি বাইক দুটি দেখতে অনেকটা ষাটের দশকের পুরনো CL72 250CC ও CL450K1 444cc বাইকের মত হবে। এই বাইকদুটি হবে মূলত ক্রুজার স্পেসিফিক এবং স্ক্র্যাম্বলার স্টাইল মোটরসাইকেলের মত ডিজাইন থাকবে। ছোট মডেলটি অর্থাৎ ২৫০ সিসির মডেলে ব্যবহার করা হবে একটি ২৪৯ সিসি ক্ষমতা বিশিষ্ট ইঞ্জিন যেটি ২৬ হর্স পাওয়ার ক্ষমতা উৎপন্ন করতে পারবে ৯,৫০০ আরপিএম গতিতে। পাশাপাশি ৭,৭৫০ আরপিএম গতিতে ২২ ন্যানোমিটার টর্ক জেনারেট করতে পারবে।

বড় মডেলটি অর্থাৎ ৫০০ সিসির বরের দিতে আপনি পেয়ে যাবেন ৪৭১ সিসি ক্ষমতা বিশিষ্ট প্যারালাল টুইন সাপোর্ট এর ইঞ্জিন। ইঞ্জিনটি ৮,৫০০ আরপিএম গতিতে ৪৪.৯ হর্সপাওয়ার ক্ষমতা উৎপন্ন করতে পারে। পাশাপাশি, ৬,০০০ আরপিএম গতিতে উৎপাদন করতে পারে ৪৪.৬ ন্যানোমিটার টর্ক। রিপোর্ট অনুযায়ী এই বছরের শেষের দিকে ভারতের বাজারে লঞ্চ করবে ২৫০ সিসির বাইকটি। অন্যদিকে, আগামী বছরের একেবারে শুরুর দিকে লঞ্চ করবে ৫০০ সিসির বাইকটি। তবে এই বাইক দুটির দাম কত হবে সেই ব্যাপারে এখনো পর্যন্ত কোন তথ্য পাওয়া যায়নি।

Related Articles