টেক নিউজ

টিকটক এখন অতীত! ফেসবুকে কোমর দোলালেই আয় করতে পারবেন মাসে ২৬ লক্ষ টাকা

বিনোদনের মাধ্যম হিসাবে একের পর এক রাস্তা খুলে যাচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায় (Social Media)। শুধু বিনোদন নয় এখন কনটেন্ট ক্রিয়েটররা (Content Creator) এর মাধ্যমে প্রচুর রোজগারও করছেন। টিকটক (Tiktok), ইনস্টাগ্রাম রিল (Instagram Reel)-এর পরে ফেসবুক নিয়ে আসলো ‘ফেসবুক রিলস ভিডিও’ (Facebook Reels Video)। যেখানে ১ মিনিটের ভিডিও বানিয়েই গোটা বিশ্বকে বিনোদন দিতে পারবে যে কোনো কনটেন্ট ক্রিয়েটর।

Ios ও Android দুটি ফোনেই এই ফেসবুক রিলস ভিডিও পাওয়া যাবে। তার সাথেই টাকা উপার্জন করার দারুন সুযোগও থাকছে। যে সুযোগ কোনো কনটেন্ট ক্রিয়েটরই মিস করতে চাইবেন না। মেটা (Meta) জানাচ্ছে মোট ১৫০টি দেশে একসাথে এই ফেসবুক রিল ভিডিও লঞ্চ করা হয়েছে।

কিভাবে এই রিল ভিডিওর মাধ্যমে অর্থ উপার্জন করবেন?
মেটা কোম্পানি জানিয়েছে, ব্যানার ও স্টিকার বিজ্ঞাপন দিয়ে পথচলা শুরু করবেন তারা। আমেরিকা, কানাডা ও মেক্সিকোতে পরীক্ষামূলক এই ফেসবুক রিলসে মানিটাইজেশন শুরু হয়ে গেছে।

তাছাড়াও এই রিল ভিডিওতে রিমিক্স ও ফেসবুক স্টোরি শেয়ার করতে পারবেন যা এক নতুন অভিজ্ঞতা পাবেন ব্যবহারকারীরা। আরও অনেক নতুন জিনিস আনার ভাবনা-চিন্তা চালাচ্ছেন কোম্পানি। সাবস্ক্রাইব ও তৈরী ভিডিও ড্রাফট করে রাখারও সুযোগ পাওয়া যাবে বলে জানা যাচ্ছে। যা নতুন কনটেন্ট ক্রিয়েটরদের অনেক অংশেই সুবিধা দেবে।

মেটা জানিয়েছে, ‘রিলস প্লে’ বোনাস প্রোগ্রামে তারা ১ বিলিয়ন ডলার ক্রিয়েটরদের জন্য বরাদ্দ করেছিল। যারা কনটেন্ট ক্রিয়েটর আছেন বা রিলস ভিডিওর নির্মাতা তাদের কনটেন্ট-এর উপরেই অর্থ দেওয়া হবে। যেমন প্রতি মাসে ৩৫,০০০ ডলার পর্যন্ত উপার্জনের রাস্তা খুলে যাচ্ছে এক একজনের। যা ভারতীয় মুদ্রায় 26 লক্ষ টাকার থেকেও বেশি। পৃথিবীর কোনায় কোনায় এই ফেসবুক রিল ভিডিও পৌঁছে দেওয়াই কোম্পানির মূল লক্ষ্য। এখন শুধু দেখার ‘ফেসবুক রিলস’ মানুষদের মধ্যে বিস্তার ছড়াতে পারে কিনা।

Related Articles