অফবিট

ছেলের পড়াশোনা চালাতে বাড়ি বিক্রি করেছিলেন বাবা, IPS অফিসার হয়ে সেই বাড়ি উপহার হিসেবে ফিরিয়ে দিল ছেলে

দারিদ্রতাকে জয় করে মেধার লড়াইয়ের অনেক উদাহরণ সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায় উঠে আসে। সেরকমই এক কাহিনী আছে বিহারের ‘প্রদীপ সিং’-এর। দারিদ্রতার প্রতিকূলতাকে কাটিয়ে আইপিএস অফিসার হওয়ার লড়াইয়ে, কিভাবে তার বাবাও শামিল হয়েছিল; সেটি অবাক করার মতন। বিশ্বের কঠিনতম পরীক্ষাগুলির মধ্যে অন্যতম ইউপিএসসি (Upsc); যে পরীক্ষায় সফলতা পাওয়ার জন্য রীতিমতো সাধ্য সাধনা করতে হয়। খুব বেশি মেধাবী হলে যে এই পরীক্ষা অতিক্রম করা যায় তাই নয়, এর জন্য লাগে কঠোর পরিশ্রম।


বিহারের গোপালগঞ্জের বাসিন্দা প্রদীপ সিং; যার বাবা বিষয়ে একজন পেট্রোল পাম্পের কর্মী। অভাবে-অনটনে হাজারো দিন কেটেছে তাদের। ছেলের ইচ্ছা ছিল আইএএস আধিকারিক (IAS officer) হওয়ার, তবে দারিদ্রতা যেন পড়াশোনাকে আটকে দিচ্ছিল। দ্বাদশ শ্রেণীর পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার পর প্রদীপ সিদ্ধান্ত নিয়েছিল, দিল্লিতে (Delhi) গিয়ে ইউপিএসসি পরীক্ষার প্রস্তুতি নেবে; কিন্তু সংসারের চরম দারিদ্রতায় সেই ইচ্ছায় বাঁধ সাধে!

তবে প্রদীপের বাবা ছিলেন অদম্য জেদি; ছেলের ইচ্ছাকে প্রাধান্য দিতে নিজের বাড়ি পর্যন্ত বিক্রি করে দেন। এরপরে প্রদীপের পড়াশোনা চলতে থাকে দিল্লিতে, বিহারে তাদের সংসারে তখন শুধুই অভাব-অনটনে।

এত কিছু বাধা-বিপত্তি দারিদ্রতা কাটিয়ে, মাত্র ২৩ বছর বয়সে ২০২০ সালে আইএএস আধিকারিক পদে নিযুক্ত হয় প্রদীপ সিং। প্রথমে ২০১৮ সালে ইউপিএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে, গোটা দেশের মধ্যে ৯৩তম স্থানে ছিল সে কিন্তু সেইবার আইএএস পদ না পাওয়ায়; ফের ২০২০ সালে পরীক্ষায় বসে সে অফিসার পদে নিযুক্ত হয়।

Related Articles