অফবিট

দেশের প্রথম রেল স্টেশন কোনও নরীর নামে, পুরোটা জানলে গর্বিত হবেন বাঙালিরা

পশ্চিমবঙ্গের হাওড়া-বর্ধমান কর্ড লাইনের এক অন্যতম স্টেশন হলো ‘বেলানগর’। ১৯৯৮ সালে ২৩ শে নভেম্বর প্রথম স্টেশনটির উদ্বোধন করেছিল তৎকালীন ভারতীয় রেলের উপমন্ত্রী শাহ নওয়াজ খান (shah Nawaz khan), তিনি ছিলেন আজাদ হিন্দ বাহিনীর সদস্য। ভারতবর্ষে সেই প্রথম কোন মহিলার নামে রেল স্টেশনের নামকরণ করা হয়। অভয়নগর উদ্বাস্তু কলোনির কাছে, এই বেলানগর স্টেশনটি আসলে ‘বেলা মিত্র’ (Bela Mitra)-এর নাম অনুসারে রাখা হয়েছিল।

‘বেলা মিত্র’ও ছিলেন আজাদ হিন্দ বাহিনীর সদস্য অর্থাৎ স্টেশনের উদ্বোধনকারীর সহযোদ্ধা। স্বাধীনতা সংগ্রামের সাথে গভীরভাবে যুক্ত ছিলেন সেই মহীয়সী নারী, ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামের জন্য তার একাধিক পদক্ষেপ মুগ্ধ করেছিল দেশবাসীকে। সেই জন্যই তার এই সাহসিকতাকেই সম্মান জানাতে, ভারত সরকার তার নামে স্টেশন করে।

বেলা মিত্র ছিলেন নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর (Netaji Subhas Chandra Bose) দাদা সুরেশচন্দ্র বসুর ছোট মেয়ে। ১৯৩৬ সালে সে হরিদাস মিত্রের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন, এরপরে শ্বশুর বাড়ি যশোরের এক মহিলা সমিতির প্রতিষ্ঠা করেছিলেন।

মাত্র 19 বছর বয়সে ‘কিশোরী বেলা’ মহিলা কমান্ডারের ভারপ্রাপ্ত হয়েছিলেন। তার স্বামীও স্বাধীনতা সংগ্রামের সাথে যুক্ত ছিলেন। বেলা এবং তার স্বামী ১৯৪৪ সালে কলকাতা থেকে সিঙ্গাপুরে বিভিন্ন গোপন বার্তা পাঠাতেন, যার ফলে তার স্বামী হরিদাস মিত্র ধরা পড়ে যায় এবং একুশ জন বিপ্লবীদের সাথে তারও ফাঁসি হয়েছিল। স্বামীর ফাঁসি আটকানোর জন্য বেলা গিয়েছিল পুনেতে, গান্ধীজীর সাথে দেখা করতে। বেলার দেশ ভক্তি দেখে গান্ধীজি চিঠির মাধ্যমে বন্দীদের ফাঁসি আটকে দিয়েছিলেন। বিপ্লবীদের হামেশাই সহায়তা করতেন বেলা। তবে মাত্র ৩২ বছর বয়সে এই যুবনেত্রীর মৃত্যু ঘটেছিল।

Related Articles