ফুটপাতে আম বিক্রি করে রাতারাতি লাখপতি তুলসী

বাজারে ১ কেজি আমের দাম কত হতে পারে? খুব বেশি দাম হলেও ৪০-৫০ টাকা! কিন্তু মাত্র ১২ টি আম, প্রতিটা আম ১০ হাজার টাকায় মোট ১.২০ লক্ষ টাকায় বিক্রি হয়েছে, শুনেছেন এমনটা? অবাক হবেন না, ঠিক এমনটিই ঘটেছে। জামশেদপুরের তুলসী কুমারী ১২ টি আম বিক্রি করেছেন ১.২০ লক্ষ টাকায়, অর্থাৎ প্রতিটি আমের দাম ১০ হাজার টাকা করে। মুম্বাইয়ের এক ব্যবসায়ী তুলসীর কাছ থেকে ওই আম কিনেছেন।

কিন্তু কেন এত দাম আম গুলির? আসলে মুম্বাইয়ের ওই ব্যবসায়ীর আসল উদ্দেশ্য ছিল তুলসীকে আর্থিক ভাবে সাহায্য করা। তুলসীকে সাহায্য করতেই তার কাছ থেকে এত দাম দিয়ে কিনেছেন আমগুলি। দরিদ্র পরিবারের সন্তান তুলসীর অনলাইন ক্লাস করার জন্য একটি স্মার্টফোনের খুব দরকার ছিল। কিন্তু তার কাছে স্মার্টফোন কেনার মতো সংস্থানই ছিলনা। বাধ্য হয়ে পথে বসে আম বিক্রি করে টাকা জোগাড় করছিল তুলসী।

আম বিক্রি করার সময়ই আমেয়া হিত নামে মুম্বাইয়ের এক ব্যবসায়ী এসে এই বিপুল টাকা দিয়ে আম গুলি কিনে নেন তুলসীর কাছ থেকে। ফলে রাতারাতি স্মার্টফোন কিনে অনলাইন ক্লাস করার স্বপ্ন পূরণ তো হলই, সাথে পড়াশোনার জন্য আরও কিছু সংস্থানও হলো তুলসীর। মুম্বাইয়ের ওই ব্যবসায়ী একটি বেসরকারি সংস্থার ম্যানেজিং ডিরেক্টর পদে কর্মরত। স্থানীয় এক সংবাদমাধ্যমের সূত্রে তুলসীর কথা জানতে পারেন তিনি।

স্থানীয় ওই সংবাদমাধ্যমে নিজের সমস্যার কথা বলেছিল তুলসী। এই খবর দেখার পরই তিনি সিদ্ধান্ত নেন তুলসীকে সাহায্য করার। সেই মতোই তিনি সবকটি আম এতটাকা দিয়ে কিনে নেন। তিনি জানিয়েছেন, তুলসীকে অনুদান দেওয়ার জন্য সাহায্য করেননি তিনি। ছোট্ট মেয়েটির যাতে পড়াশোনা বন্ধ না হয়, তার জন্য এই পদক্ষেপ করেছেন তিনি। এমন সহযোগিতা পেয়ে আপ্লুত তুলসী। সে জানিয়েছে, স্মার্টফোন কেনার টাকা সে জমাচ্ছিল। কিন্তু এরমধ্যেই এমন সহযোগিতা পাবে সে আশা করেনি।

আরও পড়ুন

ভাইরাল ভিডিও

⚡ Trending News

আরও পড়ুন