×
নিউজ

দশম শ্রেণী ফেল ফুটপাত হকার থেকে ৬০ কোটি টাকার কোম্পানির মালিক, রাজা নায়কের জীবন সংগ্রাম যেন বলিউড সিনেমার গল্প

Advertisements
Advertisements

জীবন যেন এক ‘রোলার কোস্টার’, যেখানে উত্থান-পতন সর্বদা বিদ্যমান। আমাদের রোজকার জীবন থেকে শুরু করে বিভিন্নজনের চলার পথে নানান বাঁধার সৃষ্টি হয়। এগুলোকে পেরিয়ে অনেকেই সাফল্যের চরম শিখরে পৌঁছে যায়। এরূপ নানান ঘটনার নিদর্শন আমরা পেয়ে থাকি নেটমাধ্যমে। সম্প্রতি ব্যাঙ্গালোরের রাজা নায়কের এমনই এক কাহিনীর নিদর্শন পাওয়া গেল।

Advertisements

দশম শ্রেণী ফেল রাজা ছিল একটি গরীব দলিত পরিবারের ছেলে। পড়াশোনা না হওয়ার জন্য, এক সময় রপ্তানি না হওয়া শার্ট বিক্রি করতেন তিনি ও তার বন্ধু। সেই সময় থেকেই তার নতুন কিছু করার চাহিদা ছিল মনে মনে। এরপরে নিজের ব্যবসা শুরু করে মাত্র ৫ হাজার টাকার বিনিময়ে। ফুটপাত থেকে নানান ব্যবসার মালিক হয়ে কোটিপতি হয়ে ওঠে রাজা।

এখান সফল ব্যবসায়ী হওয়ার জন্য লোকে বড় বড় ইনস্টিটিউশনে বা কলেজে, লাখ লাখ টাকা খরচ করে পড়াশোনা করতে যায়। সেখানে দশম শ্রেণীতে ফেল করা রাজা একাধারে ৪-৫টি ব্যবসায় সাফল্য লাভ করে, নজির গড়েছে। তিনি জানিয়েছেন, “তিনি অমিতাভ বচ্চনের অনেক বড় ফ্যান”! অমিতাভ বচ্চনের ‘ত্রিশূল’ সিনেমা থেকে সে জীবনে এগিয়ে চলার অনুপ্রেরণা পেয়েছে।

বর্তমানে তার একটি নিউট্রিশন প্রোডাক্টের কোম্পানি রয়েছে, যার নাম ‘নিউট্রাল প্ল্যানেট ফুড’। যার বিভিন্ন দ্রব্যাদি নিয়ে CSIR ও CFTRI তে রিসার্চ হয়। এছাড়া কুরিয়ারের বিভিন্ন জিনিসপত্র তৈরি এবং জাহাজে সেইগুলি আদান-প্রদানের ব্যবসা রয়েছে রাজার, নাম অক্ষয় এন্টারপ্রাইজ। স্ত্রী অনিতার ইচ্ছা পূরণের জন্য ছেলে-মেয়ে উভয়ের পরিষেবাতে একটি সেলুন খুলে দিয়েছেন তিনি, যার নাম পার্পেল হ্যাজ। এর পাশাপাশি পিছিয়ে পড়া বাচ্চাদের জন্য একটি স্কুল এবং নার্সিং কলেজ এবং বিএড কলেজও খুলেছে রাজা। তার নিজের একটি জলের বোতলের ব্র্যান্ড রয়েছে, যেখানে বিশুদ্ধ জল প্যাকিং করে বিক্রি করা হয়।

Advertisements