নিউজবিনোদন

‘সামপ্লেস এলস’-এ কাঁচা বাদাম গান, তুমুল সমালোচনার পর ভিডিওটি ডিলিট করে দিল পাব কতৃপক্ষ!

‘সামপ্লেস এলস’ (Someplace Else) ক্লাবটিতে সবাই না গেলেও এখন গুগল সার্চ করে জানতে চাইছেন। নিশ্চয়ই জানেন মানুষ হঠাৎ কেন জানতে চাইছেন এই ক্লাব সম্পর্কে? গত শুক্রবার ভুবন বাদ্যকর (Bhuban Badyakar) লাইভ পারফরমেন্স করেছিলেন এই বিখ্যাত ক্লাবের মঞ্চে। যেখানে তাকে ‘কাঁচা বাদাম’ (Kacha Badam) গান গাইতেও দেখা যায়। সেই গানের মুহূর্ত, প্রমোশন হিসাবেই সামপ্লেস এলস পাবের ফেসবুক (Facebook) পেজে আপলোড করা হয়েছিল।

ব্যাস, সেখানে থেকেই শুরু হয় তর্ক-বিতর্কের। নেটিজেনদের একের পর এক কমেন্ট আসে। কেউ বলেন – এমন জায়গায় ভুবন বাদ্যকারকে গান গাওয়ানো হলো, লেজেন্ডদের অপমান’। আবার কেউ বলেন – ‘শেষে এমন বিখ্যাত পাবের এই দশা যে ভুবন বাদ্যকরকে দিয়ে গান গাওয়ানো হচ্ছে’। এছাড়াও আরও অনেক কমেন্ট দেখা গেছে সেই পোস্টের কমেন্ট বক্সে। কোনোটা সাপোর্ট করে আবার কোনোটা বিরুদ্ধে। তুমুল সমালোচনার পর পাব কতৃপক্ষ সেই ভিডিওটি ডিলিট করে দেন। তার পরিবর্তে ভুবন বাবুর একটি ফটো দিয়ে লম্বা একটি বিবৃতি লেখেন।

যেখানে দেখা গেল – “সামপ্লেস এলস ক্লাবটি সঙ্গীত, সংস্কৃতি, মানুষকে ভালোবাসে। নতুন প্রতিভাকে সুযোগ দিতেই ক্লাব সবসময় আগ্রহী থাকে। কেবলমাত্র ভুবন বাদ্যকর গরীব বলে তাঁর এই পাবে গাইবার যোগ্যতা নেই, তেমনটা মনে করেন না ক্লাব কতৃপক্ষ। পাশাপাশি সংগীত, ঐতিহ্য এবং জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সব মানুষের সমান অধিকার আছে। ধন্যবাদ পশ্চিমবঙ্গ সবার সামনে এসে এই মানুষটির পাশে দাঁড়ানোর জন্য। এটা একটা মনুষত্ব ও প্রতিভার জয় বলা যায়। আমরা সামপ্লেস এলস ক্লাব সব সময় এই মানুষটিকে ভালোবাসবো ও পাশে থাকবো। আশা করি এই পারফরমেন্সটি তাকে সঠিক জায়গায় পৌঁছে দেবে যেখানে তার সত্যি পৌঁছানোর কথা।”


তাহলে বোঝা যাচ্ছে, এত বড় একটি পাব কিন্তু বীরভূমের বাদাম বিক্রেতা ভুবন বাবুর পাশেই দাঁড়িয়েছে। যারা তার গান বা মানুষটিকে নিয়ে সমালোচনা করছিলেন তারা এবার নিশ্চয়ই অনেকটাই চুপ। পোস্টটির নিচে ভুবন বাবুর জন্য শুভেচ্ছাবার্তা ও জীবনে এগিয়ে যাওয়ার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন অনেক মানুষ।

Related Articles