আগামীকালও চলবে ইয়াসের দাপট, ভারী বৃষ্টিতে ভাসবে রাজ্যের এই জেলাগুলি


প্রবল তীব্রতা নিয়ে ইতিমধ্যেই ‘যশ’ নিজের ধ্বংসলীলা চালিয়েছে ওড়িশা এবং পূর্ব মেদিনীপুর রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে। এই কারনবশত পশ্চিমের বিভিন্ন জেলাগুলিতে ও বৃহস্পতিবার এর প্রভাব দেখা যেতে পারে। এর পাশাপাশি উত্তরবঙ্গের কিছু জেলায় চরম বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

এছাড়াও বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, পশ্চিম বর্ধমান এবং বীরভূমের জেলাগুলির পাশাপাশি উত্তরবঙ্গের দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি, কালিম্পং এবং মালদহতেও (৭ থেকে ১১ সেন্টিমিটার) প্রবল মাত্রায় বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে ইতিমধ্যেই ঘোষনা করা হয়েছে হাওয়া অফিস থেকে। এছাড়াও ঝাড়খণ্ড এবং বিহারে যশে’র তাণ্ডবে ভারী বৃষ্টিপাত হওয়ার প্রবল সম্ভাবনা থাকায় হাওয়া অফিস থেকে বিশেষ সতর্কতাবার্তা ইতিমধ্যেই জারি করা হয়েছে।

যদিও পূর্বেই হাওয়া অফিসের তরফ থেকে আগেই জানানো হয়েছিল যে, ওড়িশায় যশ নিজের ধ্বংসলীলা চালানোর পর এগিয়ে যাবে
ঝাড়খন্ডের দিকে৷ এই কারণে পূর্ব মেদিনীপুর এবং পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় এই সাইক্লোনের তাণ্ডব অনেকটাই কম হবে বলে জানানো হয়েছিল আবহাওয়া দফতর থেকে এবং বাস্তবে তাই হয়েছে। তবে এই ঘূর্ণিঝড়ের পাশাপাশি পূর্ণিমার কোটাল থাকায় পূর্ব মেদিনীপুর, দুই চব্বিশ পরগণার উপকূলবর্তী অঞ্চলগুলি জলে ভেসে গিয়েছে।

আবহাওয়া দফতরের অধিকর্তারা জানিয়েছেন যে, যশে’র এই দাপট বৃহস্পতিবারের আগে কোনোমতেই রাজ্যের পিছন ছাড়বেনা। যদিও বৃহস্পতিবার যেসব জেলায় প্রবল বৃষ্টি হওয়ার পূর্বাভাস রয়েছে, সেইসব এলাকাগুলিতে প্রশাসনের তরফ থেকে আগেই বিশেষ সতর্কতামূলক পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন

ভাইরাল ভিডিও

⚡ Trending News

আরও পড়ুন