×
নিউজ

রেকর্ড দরের থেকে ৯৪২১ টাকা দাম কম হল ২২-২৪ ক্যারেট সোনার

Advertisements
Advertisements

বেশ কিছুদিন ধরেই আচমকাই সোনার দামের গ্রাফ বেশ ঊর্ধ্বমুখী হয়েছিল। যার জেরে স্বর্ণ ব্যবসায়ী থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষের কপালে নেমে এসেছিল চিন্তার ভাঁজ। তবে আজ মঙ্গলবার সপ্তাহের দ্বিতীয় কর্মদিবসে কিছুটা চিন্তার ভাঁজ সরিয়ে এমসিএক্স সূচক অনুযায়ী ১০ গ্রাম গোল্ডের দাম কিছুটা কমেছে। ০.২৩ শতাংশ গোল্ড ফিচারস এর দাম কমে নতুন দাম হয়েছে ৪৬,৭৭৯ টাকা। সেই সঙ্গে কমেছে রুপোর দাম ও। ১ কিলোগ্রাম রুপোর দাম ০.৫ শতাংশ কমে নতুন দাম হয়েছে ৬০,৬৫১ টাকা।

Advertisements

গতবারের সেখানে দেখা গিয়েছিল সোনার দাম ০.৮ শতাংশ বেড়ে ছিল। সোনার পাশাপাশি রুপোর দাম ও ০.৬৫ শতাংশ ঊর্ধ্বমুখী হয়েছিল। গত সেশনে শুক্রবারে এমসিএক্স সূচক অনুযায়ী ১০ গ্রাম ডিসেম্বর গোল্ড ফিচারসের দাম ০.৫ শতাংশ কমে নতুন দাম হয়েছিল ৪৬,৫০০ টাকা। সেপ্টেম্বরে প্রায় ৪ শতাংশের মতো নিম্নমুখী ছিল স্বর্ণ ধাতু। গত বছরের আগস্টে দাম বাড়তে বাড়তে ১০ গ্রাম সোনার দাম পৌঁছে গিয়েছিল ৫৬,২০০ টাকায়। আপাতত রেকর্ড দরের থেকে ৯৪২১ টাকা কম রয়েছে।

আইআইএফএল সিকিউরিটিজের অনুজ গুপ্তর কথায়, চলতি মাসের প্রথম দু সপ্তাহ অন্তত এমসিএক্স সূচকে ১০ গ্রাম সোনার দামের গ্রাফ নিম্নমুখী হয়ে ৪৫,৫০০ টাকা থেকে ৪৫,০০০ টাকায় চলে আসতে পারে। কারণ সেই সময় মার্কিন ডলার আরও শক্তিশালী থাকার সম্ভাবনা রয়েছে। যখনই মার্কিন ডলারের কোনো রকম দুর্বলতা লক্ষ্য করা যায়, তাহলে আন্তর্জাতিক বাজারে এক আউন্স সোনার দাম ১,৭৫০ ডলার থেকে ১,৭৬০ ডলার পার করে যেতে পারে। যা পরবর্তী মাসে ১,৮০০ ডলার থেকে ১,৮৫০ ডলারের স্তরে ছুঁয়ে ফেলার সম্ভাবনা আছে। যার প্রভাব হয়তো লক্ষ্য করা যেতে পারে ভারতীয় বাজারেও। পরবর্তী মাসে এমসিএক্স সূচক অনুযায়ী ১০ গ্রাম সোনার দাম ৪৮,০০০ টাকা থেকে ৪৮,৫০০ টাকার কাছাকাছি পৌঁছে যাওয়ার সম্ভবনা রয়েছে।

Advertisements