Saturday, January 22, 2022

পেয়ে যান মাত্র “২৫ হাজার”টাকা! মিলিয়ে নিন পুরোনো ১০ টাকা,

কথায় বলে,টাকা দিলে টাকা আসে। কথাটা যে কতটা সত্যি তার প্রমাণ দেবে পুরোনো দশ টাকার নোট। পুরোনো দশ টাকার নোট যদি আপনার কাছে থাকে তবে আপনি পঁচিশ হাজার টাকার মালিক হতে পারেন। এবার সেই সুবর্ণ সুযোগ এসেছে আপনার কাছেই। ঘরে বসে টাকা বিক্রি করুন আর একশো গুণ বেশি টাকা লাভ করুন।
কথায় বলে,টাকা দিলে টাকা আসে। কথাটা যে কতটা সত্যি তার প্রমাণ দেবে পুরোনো দশ টাকার নোট। পুরোনো দশ টাকার নোট যদি আপনার কাছে থাকে তবে আপনি পঁচিশ হাজার টাকার মালিক হতে পারেন। এবার সেই সুবর্ণ সুযোগ এসেছে আপনার কাছেই। ঘরে বসে টাকা বিক্রি করুন আর একশো গুণ বেশি টাকা লাভ করুন। কিন্তু কিভাবে কোন উপায়ে আপনি ১০ তলার নোট থেকে এই সুবিধা পাবেন! যে কোনো ১০ টাকা হলেই কি মিলবে ২৫,০০০ টাকা?
অনলাইনের যুগে একাধিক নতুন অ্যাপ এসেছে। বেশ কয়েকটি অ্যাপ ই কমার্স এবং বাণিজ্যিক লেনদেনের সঙ্গে যুক্ত। তাছাড়া কোনরকম নিলাম নয় বরং এই অ্যাপগুলি মাধ্যমেই আপনি সরাসরি আপনার টাকা ক্রেতার কাছে বিক্রি করতে পারবেন। ক্রেতাও নিজের চাহিদা অনুযায়ী পছন্দ মত নোট বেছে নেবেন এই অ্যাপের মাধ্যমে। বিভিন্ন সংগ্রহশালা ও গবেষণা কেন্দ্র চল বেড়েছে পুরনো কয়েন ও নোটের। ইতিহাস এবং প্রত্নতত্ত্বের নিদর্শন রাখতে বহু সংস্থা এই নোট ও কয়েক গুলি কিনে থাকেন। তাই দিন দিন চাহিদা বাড়ছে এইসব প্রায় বিলুপ্ত হয়ে যাওয়া নোটের। সম্প্রতি ভারতীয় পুরোনো একটি দশ টাকার নোট যার দাম উঠেছে 25 হাজার টাকা পর্যন্ত। অবাক লাগলেও এটাই সত্যি।
তবে এই নোট বিক্রি করে 25000 টাকা আপনি তখনই পেতে পারেন যদি সমস্ত রকম শর্ত আপনি পূরণ করেন। মনে রাখবেন যে কোন 10 টাকা হলেই চলবে না। 10 টাকার পিছনে অশোক স্তম্ভের ছবি এবং অন্য পিঠে একটি পালতোলা নৌকার ছবি থাকতে হবে। শুধু এখানেই শেষ নয় রিজার্ভ ব্যাংকের প্রথম গভর্নর সিডি দেশমুখের সই থাকবে নোটের উপর।”১০ রুপিজ”এই শব্দ বন্ধটি নোটের পিছনে এবং সামনে লেখা থাকবে।
কয়েন বাজার নামের একটি ওয়েবসাইট রয়েছে ঠিক কুইকারের মত। এই ওয়েবসাইটে আপনি খুব সহজেই নোট বিক্রি করতে পারবেন। প্রথমেই লগইন করতে হবে কয়েন বাজার ডট কম। এরপর সেলার বা বিক্রেতা হিসেবে আপনার নাম রেজিস্টার করতে হবে। এরপর আপনার নোটের একটি সুন্দর ছবি তুলে ওয়েবসাইটে আপলোড করতে হবে। সেখান থেকে আপনার নোটের বিজ্ঞাপন দেওয়া হবে যদি কারোর পছন্দ হয় তবে তিনি নোটটি কিনতে পারেন নির্ধারিত মূল্যে। ব্যাস আর চিন্তা কি ঘরে বসেই 25000 টাকা! তাও আবার পুরনো নোটের বিনিময়।

⚡ Trending News

আরও পড়ুন