মুকেশ আম্বানির ড্রাইভারের বেতন লজ্জায় ফেলে দেবে উচ্চপদস্থ সরকারি কর্মচারীদেরকে

Driver

ভারত তথা বিশ্বের অন্যতম ধনী ব্যক্তি মুকেশ আম্বানির নামটা কোনোদিন শোনেননি এমন মানুষের সংখ্যা হয়তো হাতে গোনা যাবে। রিলায়েন্স গোষ্ঠীর মালিক মুকেশ আম্বানি সম্পদের নিরিখে গত কয়েকদশক ধরে ধনীতম মর্যাদা পেয়েছেন। যত দিন যাচ্ছে তাঁর সম্পদের পরিমাণ বৃদ্ধি পেয়েই যাচ্ছে। স্বাভাবিকভাবেই তাঁর বিলাসবহুল জীবনযাপনে রয়েছে রাজকীয়তার ছাপ। তিনি স্বপ্ননগরী মুম্বাইতে বিশাল প্রাসাদ “অ্যান্টিলিয়া” তে থাকেন যার মূল্য প্রায় ১৪ কোটি টাকা। তাঁর বাড়ি একটি সেভেন স্টার হোটেলের সমান। সেইসাথে এই ধনকুবের আছে বিলাসবহুল গাড়ির কালেকশন। আপনি শুনলে অবাক হবেন যে এই বাড়ির প্রথম কয়েকটি তলা শুধুমাত্র গাড়ি পার্কিংয়ের জন্য বরাদ্দ। তবে আপনি কি কখনো ভেবে দেখেছেন আম্বানির নিজের গাড়ির চালকের বেতন কত?

ভারত তথা গোটা বিশ্বের কাছে এই আম্বানি নামটা ব্যাপক পরিচিত। অর্থ ধনরাশি এবং সেইসাথে বিলাসবহুল জীবনের কথা উঠলে সবার প্রথমে মাথায় নাম আসে আম্বানির। মাঝে মাঝে সোশ্যাল মিডিয়াতে চর্চার কেন্দ্রবিন্দুতে আসে আম্বানির বিলাসবহুল জীবনযাপন। জিও এবং রিলায়েন্স প্রাইভেট লিমিটেডের দৌলতে বিশ্বের ধনীতম মানুষের তালিকায় নাম লিখিয়েছেন এই ব্যক্তি। মুম্বাইয়ে চলাফেরা করার জন্য তিনি মুম্বাই পুলিশের থেকে অ্যাডিশনাল সিকিউরিটি পান। এর মধ্যে সম্প্রতি জানা গিয়েছে আম্বানি তার নিজের গাড়ির চালককে প্রচুর বেতন দেয়, যা শুনলে আপনার চক্ষু চড়কগাছ হতে বাধ্য।

আপনি ভাবছেন একটা গাড়ির চালকের কত আর বেতন হতে পারে। খুব জোর কয়েক হাজার টাকা। আপনাকে জানিয়ে রাখি আপনার ধারণা সম্পূর্ণ মিথ্যে। মুকেশ আম্বানি তার ব্যক্তিগত গাড়ির চালককে মাসিক ২ লাখ টাকা বেতন দেন। ভারতে এক উচ্চপদস্থ সরকারি চাকরির বেতনও হয়তো এত হয় না। এছাড়া মুকেশ আম্বানির গাড়ির চালকের সন্তানেরা বিদেশে পড়াশোনা করে বলে জানা গেছে। তবে এর পিছনেও অবদান সেই মুকেশ আম্বানিরই।

সোশ্যাল মিডিয়াতে এখন তুমুল চর্চার রয়েছে মুকেশ আম্বানির গাড়ির চালকের বেতন বৃত্তান্ত। মাসিক লাখ লাখ টাকা বেতন দেওয়ার পরও ড্রাইভার এর সন্তানের সমস্ত পড়াশোনার খরচ বহন করেন মুকেশ আম্বানি নিজেই। গাড়ির চালকের সন্তানেরা বিদেশে পড়াশোনা করছেন। তবে মুকেশ আম্বানির গাড়ির চালক হওয়া খুব একটা সহজ নয়। এইজন্য দিতে হয় কঠিন পরীক্ষা।