নিউজ

আবহাওয়া দপ্তরের তরফ থেকে জানানো হলো, শীত প্রেমীদের জন্য দুঃখের খবর!

রাজ্য থেকে শীতের আমেজ যেন ক্রমশ কমে যাচ্ছে। বছরের শেষে শহরে তাপমাত্রার পারদ ক্রমশ ঊর্ধ্বমুখে গমন করছে। গতকাল অর্থাৎ সোমবার থেকে রাজ্যে তাপমাত্রা অনেকখানি বেড়ে গিয়েছে। সোমবার রাতে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেয়ে দাঁড়ায় ১৬.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের ঘরে। এই তাপমাত্রা স্বাভাবিকের থেকে প্রায় ৩ ডিগ্রি বেশি বলে জানা গিয়েছে।

আবহাওয়া দফতরের সূত্র অনুযায়ী জানা গিয়েছে, আজ রাতে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা প্রায় ১৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছাড়াতে পারে।
আজ অর্থাৎ মঙ্গলবার শহরে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকবে ২৬.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি যা স্বাভাবিক তাপমাত্রার থেকে ১ ডিগ্রি বেশি বলে জানানো হয়েছে। আজ দক্ষিণবঙ্গের কয়েকটি জেলায় হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস দিয়েছে হাওয়া অফিস। পশ্চিমবঙ্গে প্রবেশের পূর্বেই পশ্চিমী ঝঞ্ঝার প্রভাবে উত্তরের হাওয়ার গতিপথে বাধা সৃষ্টি হয়। যার কারণে উত্তরের হাওয়ার গতিপথ পরিবর্তন হয়েছে।

আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, বঙ্গোপসাগর থেকে আসা জলীয় বাষ্পের ফলে উত্তরের হাওয়ার গতিপথে বাধা সৃষ্টি হয়েছে। বাঁকুড়া, বীরভূম, পশ্চিম বর্ধমান ও পুরুলিয়ায় বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস দিয়েছে হাওয়া অফিস। এছাড়াও বুধবার পশ্চিম মেদিনীপুর, মুর্শিদাবাদ, ঝাড়গ্রামে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানা গিয়েছে। সামান্য বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে নদিয়া, পূর্ব বর্ধমান এবং হুগলিতেও। কলকাতার আকাশে আজ আংশিক মেঘাচ্ছন্ন পরিস্থিতি থাকবে। সব মিলিয়ে আজ শুষ্ক আবহাওয়ার পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া দফতর।

বঙ্গোপসাগরে উৎপন্ন জলীয় বাষ্পপূর্ণ বাতাস ক্রমেই স্থলভাগের দিকে প্রবেশ করছে। যার দাপটে আবহাওয়ার পরিবর্তন দেখা দেবে। এছাড়াও পশ্চিমী ঝঞ্ঝার প্রভাবে দক্ষিণবঙ্গের একাধিক জেলায় বৃষ্টিপাতের আশঙ্কা করা হয়েছে। তবে আবহাওয়া দফতরের তরফ থেকে জানা যাচ্ছে, নতুন বছরের শুরুতেই পুনরায় শীতের আমেজ ফিরবে রাজ্যে। আগামী সপ্তাহ থেকে তাপমাত্রা অনেকখানি কমবে বলে পূর্বাভাস হাওয়া অফিসের তরফ থেকে।

Related Articles