×
লাইফস্টাইল

পার্সে টাকা থাকছে না কিছু করেই! এই নিয়মগুলি মেনে চললেই মানিব্যাগ ভরে উঠবে টাকায়

Advertisements
Advertisements

যুগের সাথে সাথে বর্তমানে অনেক কিছুই পরিবর্তন হয়েছে। কড়ি দিয়ে কেনার বদলে টাকার বিনিময়ে জিনিস কেনার রীতি চালু হয়েছে অনেকদিন। আর এই টাকা রাখার জন্য সব থেকে ভরসার জায়গা হলো পার্স কিংবা মানি ব্যাগ। তবে পকেটে পার্স থাকলেও অনেক সময়ই আমাদের কাছে টাকা থাকে না। আর ফাঁকা পার্স লোকের সামনে বের করাটা একটু লজ্জাজনক ব্যাপার।

Advertisements

বর্তমানে দুর্মূল্যের বাজারে নিজের পার্সকে টাকায় ভরিয়ে তোলা সাধারণ মানুষের কাছে রীতিমতো চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে। হাজারো জাদু মন্ত্র করেও দেবী লক্ষ্মী কিছুতেই থাকে না। আবার অনেকে টাকা বাঁচিয়ে রাখতে জানে না। আমাদের আজকের এই প্রতিবেদনটা তাদের জন্য যাদের পার্স বেশিরভাগ সময়ই ফাঁকা থাকে কিংবা বেহিসেবী ভাবে টাকা নষ্ট করে।প্রথমত, আমাদের মধ্যে অনেকেই আছেন যারা পার্সের সব টাকা একবারে বের করে দেন। কিন্তু এরপর থেকে এই মারাত্মক ভুল আর কোনোদিন করবেন না। কারণ পার্স বা মানি ব্যাগ হলো দেবী লক্ষ্মীর বাসস্থান, তাই তাঁকে ঘর থেকে একেবারে টেনে বের করে দেওয়া ঠিক নয়। তাই অন্তত এক টাকা হলেও রাখবেন ব্যাগের মধ্যে।

দ্বিতীয়ত, ব্যাগের ভেতরে গণেশ কিংবা লক্ষ্মী কিংবা কুবের অথবা তিন দেব দেবীর ছবি ধাতব কয়েনের মধ্যে খোদায় করা রয়েছে, এই রকম দেখে রাখুন। বস্তু মতে, সোন রূপা হলো এই ধরনের প্রতিকৃতির জন্য আদর্শ। তাই মানি ব্যাগে এই ধরনের কয়েন রাখুন। তৃতীয়ত, নিজের পার্সকে কোনোদিন অপরিষ্কার অবস্থায় ধরবেন না, কারণ তাতে রয়েছেন স্বয়ং দেবী। সকালে বাজার করার দরকার হলে আগের দিন রাতেই ব্যাগ থেকে টাকা বের করেও রাখতে পারেন, যাতে সকালে বাসি গায়ে মানি ব্যাগ আপনাকে স্পর্শ করতে না হয়।

তাছাড়া নিজের রাশি বিচার করে যে রং আপনার ভাগ্য ফেরাতে পারে ঠিক সেই রঙের ব্যাগ কিনতে পারেন। যেমন- বৃষ রাশি, মকর রাশি এবং কন্যা রাশির জন্য বাদামি ব্যাগ। মেষ রাশি, সিংহ রাশি এবং ধনু রাশির জন্য লাল রঙের ব্যাগ ব্যবহার করতে পারেন।

Advertisements