Sunday, November 28, 2021

একঘেয়ে চিকেনের স্বাদ আর নয়, বাড়িতে খুব সহজেই বানিয়ে ফেলুন চিকেন মহারাণী, দেখুন রেসিপি

করোনা পরিস্থিতিতে বাইরে খেতে যাওয়াই দায়। মনে তো সব সময় একটা চিন্তা থেকেই যায়। তারপর বাইরে গিয়ে মাস্ক খুলে খাওয়া দাওয়া করা তো এখন একদমই সুরক্ষিত নয়। আর অন্যদিকে বাইরে একগাদা টাকা নষ্ট করার থেকে বাড়িতেই বানিয়ে ফেলুন চিকেন মহারাণী। স্বাদ একদম রেস্টুরেন্টের মতোই। পয়সাও বাঁচলো, আর করোনাকালে বাইরে বসে খেতেও হল না। চলুন দেখে নিই সেই রেসিপি।

উপকরণ: চিকেন- ৬০০ গ্রাম (উইথ বোন), টক দই- ৩ টেবিল চামচ, লবণ- স্বাদমতো, কাসৌরি মেথি- ২ চা চামচ, কাশ্মীরি লঙ্কার গুঁড়ো- ১ চা চামচ, আদা বাটা- ১ টেবিল চামচ, রসুন বাটা- ১ টেবিল চামচ, পেঁয়াজ- ১টা গোটা, কাঁচালঙ্কা- ৫টা (ফাটিয়ে রাখতে হবে), রসুনের কোয়া- ৮-৯ টা, গোটা আদা- ১ টা ছোটো আকৃতির, রিফাইন্ড তেল, পেঁয়াজ কুঁচি- ২ টো বড়ো পেঁয়াজের মাপের, গোটা ধনে- ১ টেবিল চামচ, গৌটা জিরে- ১ টেবিল চামচ, গোটা মৌরি- ২ টেবিল চামচ, গোটা আমন্ড- ১০ টা (আগে থেকে জলে ভিজিয়ে রাখতে হবে), কাজু- ১ টেবিল চামচ, দুধ- ১ কাপ, চিলিফ্লেক্স- ২ চা চামচ।

প্রণালী: প্রথমেই উতথ বোন চিকেনগুলিকে ভালো করে পরিষ্কার করে ধুয়ে নিন। এরপর একটি পাত্রে চিকেনগুলিকে নিয়ে একে একে তার সাথে টক দই, স্বাদমতো লবণ, কসৌরি মেথি, কাশ্মীরি লঙ্কার গুঁড়ো, আদা বাটা ও রসুন বাটা দিয়ে চিকেনটাকে ভালোকরে ম্যারিনেট করে নিন। এরপর এটিকে আধ ঘন্টা রেখে দিন। যদি হাতে সময় অনেকটা বেশি থাকে তাহলে ২-৩ ঘন্টাও ম্যারিনেট করে রেখে দিতে পারেন। যতোটা বেশিক্ষণ সময় ম্যারিনেট করে রাখা হবে রেসিপিটা ততো সুস্বাদু হবে এবং চিকেনটা নরম হবে।

এরপর একটি ছোটো আকারের পেঁয়াজ, একটি আদার টুকরো, রসুনের কোয়া, কাঁচালঙ্কা, অল্প পরিমাণে জল মিক্সিতে দিয়ে ভালো করে একটি পেস্ট বানিয়ে নিন।

এবার গ্যাসেতে কড়াই বসিয়ে তার মধ্যে ৩ টেবিল চামচ রিফাইন্ড তেল দিয়ে তেল গরম হতে দিন। তেল ভালো করে গরম হয়ে গেলে তার মধ্যে কুঁচি করে রাখা পেঁয়াজগুলোকে দিয়ে দিন। গ্যাসের ফ্লেমটাকে মিডিয়ামে করে দিন। এবার হালকা করে কুঁচি করে রাখা পেঁয়াজগুলিকে ভেজে নিন। খুব বেশি লাল করে ভাজার দরকার নেই। পেঁয়াজ কুঁচিগুলো হালকা করে ভাজা হয়ে গেলে তার মধ্যে আগে থেকে বানিয়ে রাখা পেঁয়াজ, আদা রসুন, কাঁচালঙ্কার পেস্টটিকে দিয়ে দিন। এবার এই সবকিছুকে ৪-৫ মিনিট ধরে ভালো করে নাড়াচাড়া করে মশলাটা কষিয়ে নিন।

মশলাটি ভালো করে কষানো হয়ে গেলে তাল মধ্যে ম্যারিনেট করে রাখা চিকেনগুলোকে দিয়ে দিন। এবার চিকেনগুলোকে মশলাটার সাথে ভালো করে কষিয়ে নিন। এবার গ্যাসের ফ্লমটা একদম হালকা আঁচে রেখে ঢাকা দিয়ে কিছুক্ষণের জন্যে সিদ্ধ হতে দিন।

এবার একটি অন্য ফ্রাইং প্যানে গোটা ধনে, গোটা জিরে, গোটা মৌরি নিয়ে গ্যাসে হালকা বা মাঝারি আঁচে এক থেকে দেড় মিনিট এগুলিকে একসাথে হালকা করে ভেজে নিতে হবে। খেয়াল রাখতে হবে যাতে এটি বেশি লাল করে ভাজা না হয়। নাহলে মশলার সুন্দর গন্ধটা নষ্ট হয়ে যেতে পারে। এবার মশলা থাকে ফ্রাইং প্যান থেকে নামিয়ে মিক্সিতে ভালো করে গুঁড়ো করে নিন।

এরপর যে চিকেনগুলোকে আগে থেকে সিদ্ধ হতে দেওয়া ছিল, তার ঢাকনাটি খুলে ওরমধ্যে ধনে, জিরে মৌরির তৈরি করা ড্রাই রোস্ট মশলাটা অর্ধেক পরিমাণে মিশিয়ে দিন। আবারও চিকেনটাকে ভালো করে কষিয়ে নিন।

ততোক্ষণ মিক্সিতে ভেজানো আমন্ড, কাজু ও ১/২ কাপ পরিমাণে দুধ দিয়ে ভালো করে একটি মিশ্রণ তৈরি করে নিন। পেস্টটি কড়াইতে কষতে দেওয়া চিকেনের মধ্যে মিশিয়ে নিন। তারপর চিকেনগুলোর মধ্যে আরও ১/২ কাপ দুধ মিশিয়ে হালকা ফ্লেমে নাড়াচাড়া করতে থাকুন। খেয়াল রাখবেন যাতে বাদামের পেস্ট কড়াইতে ধরে না যায়। এবার স্বাদমতো লবণ, চিলিফ্লেক্স, কসৌরি মেথি ও বাকি ভাজা মশলাটা দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে চিকেনগুলোকে নাড়াচাড়া করতে থাকুন। ২ মিনিট ভালো করে মিশিয়ে নিয়ে গ্যাসের ফ্লেমটিকে অফ করে দিয়ে কড়াইটা ঢাকা দিয়ে মিনিট পাঁচেক রেখে দিন। ৫ মিনিট পর ঢাকনাটি খুলে গরম ভাত কিংবা পরোটার, নান কিংবা লাচ্চা পরোটার সঙ্গে গরম গরম পরিবেশন করুন চিকেন মহারাণী।

⚡ Trending News

আরও পড়ুন