×
লাইফস্টাইল

‘গোলবাড়ির স্পেশাল মটন কষা’ বানিয়ে ফেলুন বাড়িতেই, শিখে নিন রেসিপি

Advertisements
Advertisements

আমরা বাঙালিরা সাধারণত খাদ্য রসিক হয়ে থাকি। তাই বিভিন্ন রকমের খাবার খেতে আমরা পছন্দ করি। আর সেটা যদি হয় মাংস তাহলে তো কথাই নেই। কষা মাংস আর ভাত খেতে আমরা সকলেই খুব ভালোবাসি। তাই প্রায় প্রত্যেক বাড়িতে রবিবার ছুটির দিনে মাংস হয়ে থাকে। মানুষের মধ্যে খাসির মাংস সকলের খুব প্রিয়। খাসির মাংস খেতে পছন্দ করে না এমন লোক খুব কমই আছে। মাংস খেতে ভালবাসলেও আমরা পাতলা ঝোল কিন্তু খেতে কেউ পছন্দ করি না। কষা মাংস না হলে আমাদের খেতে ভালো লাগেনা।

Advertisements

কিন্তু বর্তমানে করোনা ভাইরাসের জন্য আমরা রেস্টুরেন্টে গিয়ে খেতে পারিনা। তাই আমরা বাড়িতেই বানিয়ে দিতে পারি সুস্বাদু ধরনের মাংস। তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক এই পদ্ধতিটি কি।

উপকরণ-
পাঁঠার মাংস, রসুন বাটা ,আদা বাটা, পেঁয়াজ কুচি ও গোটা গরম মশলা। লাগবে তেজপাতা, জিরে, টক দই। এছাড়া প্রয়োজন ভাজা মশলা। নুন লাগবে স্বাদমতো। এছাড়াও লঙ্কার গুঁড়ো, হলুদ গুঁড়ো ও তেল লাগবে।

রান্নার পদ্ধতি:
প্রথমে মাংস গুলোকে ভাল করে জল দিয়ে ধুয়ে নিতে হবে। সেটাকে নুন হলুদ দিয়ে সেদ্ধ করে রাখতে হবে। এরপর সিদ্ধ করা মাংসটাকে নুন, হলুদ, রসুন বাটা ও টক দই দিয়ে ভালো করে মাখিয়ে রাখতে হবে। এরপর কড়াইয়ে তেল দিয়ে ভালোভাবে ভেজে নিতে হবে পেঁয়াজ কে। পেঁয়াজ ভাজা হয়ে গেলে তাও মিক্সিতে বেঁটে রাখতে হবে। এবার গরম তেলে গরম মসলা, আদাবাটা, রসুনবাটা প্রভৃতি সমস্ত দিয়ে ভালো করে ভাজতে হবে। ভাজা হয়ে গেলে দিয়ে দিন মেরিনেট করা মাংস। নাড়াচাড়া করে স্বাদমতো নুন লঙ্কা গুঁড়ো দিয়ে দিন। ভালোভাবে মাংস কষা হয়ে গেলে তাতে জল দিয়ে ঢাকা দিয়ে সেদ্ধ করুন। মাংস সেদ্ধ হয়ে গেলে তা তৈরি হয়ে যাবে। এবারে সেটি ভাজা মশলা দিয়ে পরিবেশন করুন। এই রান্নাটা খাসির মাংস ছাড়াও চিকেন দিয়েও করা যেতে পারে। তবে তাতে চিকেন আগে থেকে সেদ্ধ করার দরকার নেই। এইভাবে আমরা সুস্বাদু গোলবাড়ির কষা মাংস রান্না করতে পারি।

Advertisements