রুটি পরোটার সঙ্গে খাওয়ার জন্য বানিয়ে ফেলুন দুর্দান্ত স্বাদের আলু ঢেঁড়সের তরকারি, দেখুন রেসিপি

রুটি,পরোটা ও লুচি র সঙ্গে কি তরকারি হবে সেই নিয়ে বেশ চিন্তায় পরতে হয় বাড়ির কর্তী দের। রোজ রোজ একই ধরণের রান্না খেতে একদমই ভালো লাগে না কারোর। তবে, আজ আপনাদের বলবো ‘আলু ঢেঁড়সের’ তরকারি(Alu Bhindi Recipe)। যা অনায়াসেই রুটি-পরোটার সঙ্গে খাওয়া যায়। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক কীভাবে বানাবেন।

উপকরণ: ৩০০ গ্রাম ঢেঁড়স, মিডিয়াম সাইজের ৩ টে সেদ্ধ আলু , পেঁয়াজ কুচি, আদা বাটা, রসুন বাটা, লঙ্কা বাটা, গোটা জিরে, শুকনো লঙ্কা, টমেটো কুচি, জিরে গুঁড়ো, ধনে গুঁড়ো, লঙ্কা গুঁড়ো, হলুদ, নুন, চিনি, কসুরি মেথি, গরম মসলা গুঁড়ো, সরষের তেল।

প্রণালী: প্রথমেই কড়াইতে ২ টেবিল চামচ সরষের তেল দিয়ে ঢেঁড়স গুলিকে ভেজে নিতে হবে। এরপর ঢেঁড়স ভাজা হয়ে গেলে তুলে নিতে হবে। এরপর ওই তেলের মধ্যেই ১টা শুকনো লঙ্কা, ১/৪ চা চামচ গোটা জিরে ও ১ টা বড় সাইজের কুচনো পেঁয়াজ দিয়ে ভালো করে ভেজে নিতে হবে। এরপর ওর মধ্যেই মিডিয়ায় সাইজের একটি টমেটো কুচি দিয়ে ভালো করে নেড়ে এরপর আদা, রসুন ও কাঁচালঙ্কা বাটা দিয়ে দিতে হবে। এরপর মসলাটা নাড়াচাড়া করে ১ চা চামচ ধনে গুঁড়ো, ১/২ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো, ১/২ চা চামচ জিরে গুঁড়ো, সামান্য কাশ্মীরি রেড চিলি পাউডার ও সামান্য জল দিয়ে মসলাটাকে ভালো করে কষিয়ে নিতে হবে।

আর কষানোর সময়ই নুন ও চিনি দিয়ে দিতে হবে। এরপর মসলা কষে এলে এর মধ্যে কসুরি মেথি দিতে হবে। এরপর সেদ্ধ করে রাখা আলু হাতের সাহায্যে স্মাশ করে দিয়ে দিতে হবে। মসলার সঙ্গে আলু মিশিয়ে নিয়ে ভেজে রাখা ঢেঁড়স গুলো দিয়ে দিতে হবে। এরপর ভালো করে নাড়িয়ে পরিমান মতো জল দিয়ে দিতে হবে। এরপর মিনিট পাঁচেক রান্না করে নামানোর আগে গরম মসলা গুঁড়ো ছড়িয়ে নিলেই তৈরি ‘আলু ঢেঁড়সের তরকারি’।