অর্থনৈতিক

মাসের শুরুতেই সোনার দামে বড় পতন, রেকর্ডের থেকেও সস্তা ১১,৩০০ টাকা

নতুন বছরের দ্বিতীয় মাস শুরু হলেও ভারতীয় বাজারে সোনা ও রুপোর দামে খুব একটা পার্থক্য দেখা যাচ্ছে না। বিয়ের এই মরশুমে সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে প্রায় সকলেই কমবেশি সোনা-রুপো উভয় ধাতু দিয়ে তৈরী জিনিস বা অলঙ্কার কেনার প্রতি স্বাভাবিকভাবেই ঝুঁকছেন।

মঙ্গলবার সংসদে বাজেট পেশ করেছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। নতুন বাজেট প্রকাশ্যে আসার মধ্যেও সোনা ও রুপোর দামের সেরকম কোনো পরিবর্তন হয়নি। ভারতে প্রতি ১০ গ্রাম ২২ ক্যারেট সোনার দাম আজ রয়েছে ৪৪,৯০০ টাকা। এই বিষয়টি উল্লেখযোগ্য যে,গত দুইদিনে প্রতি ১০ গ্রাম ২২ ক্যারেট সোনার দাম অপরিবর্তিতই থেকেছে। অপরদিকে, প্রতি ১০ গ্রাম ২৪ ক্যারেট সোনার দাম ১০ টাকা হ্রাস পেয়েছে। গত ৩১ জানুয়ারি প্রতি ১০ গ্রাম ২২ ক্যারেট সোনার দাম ছিল ৪৮,৯৯০ টাকা, আজ ১ ফেব্রুয়ারি সমপরিমাণ সোনার দাম হয়েছে ৪৮,৯৮০ টাকা।

প্রসঙ্গত, ২০২০ এর লকডাউনের সময় আগস্ট মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে ২২ ক্যারেট সোনার দামের গ্রাফ বাড়তে বাড়তে পৌঁছে গিয়েছিল ৫৬,২০০ টাকার ঘরে। যা এখনো অবধি রেকর্ড দর হিসাবে বিবেচিত হয়ে আসছে। আজ মঙ্গলবার সপ্তাহের দ্বিতীয় কর্মদিবসে ভারতীয় বাজারে ২২ ক্যারেট সোনার দাম রেকর্ড দরের থেকে কম রয়েছে ১১,৩০০ টাকা। ওদিকে একই সময়ে ২৪ ক্যারেট সোনার দামের গ্রাফ পৌঁছে গিয়েছিল ৫৭,০০০ টাকার অপরের স্তরে।

গত শুক্রবার বিশ্ব স্বর্ণ পরিষদের তরফ থেকে একটি রিপোর্ট পেশ করা হয়েছে। প্রকাশিত রিপোর্ট অনুযায়ী, ২০২১ সালের ডিসেম্বর ত্রৈমাসিকে সোনার চাহিদা সবচেয়ে বেশি ছিল। সোনার দামের বৃদ্ধি ঘটলেও মানুষের মধ্যে সোনার চাহিদা যে হ্রাস পায়নি এই বিষয়টি বিশ্ব স্বর্ণ পরিষদের প্রকাশিত রিপোর্ট থেকে সুস্পষ্টভাবে প্রমাণিত হয়েছে।

পাশাপাশি, কলকাতাতেও গত দুইদিনে প্রতি ১০ গ্রাম ২২ ক্যারেট সোনার দামে কোনো পরিবর্তন হয়নি। সোমবার ও মঙ্গলবার প্রতি ১০ গ্রাম ২২ ক্যারেট সোনার দাম থেকেছে ৪৪,৯০০ টাকা। কলকাতাতে অপরদিকে প্রতি ১০ গ্রাম ২৪ ক্যরেট সোনার দাম ১০ টাকা হ্রাস পেয়েছে। ১ ফেব্রুয়ারি কলকাতায় প্রতি ১০ গ্রাম ২৪ ক্যারেট সোনার দাম কমে হয়েছে ৪৯,০৯০ টাকা। বিয়ের এই মরশুমে কলকাতাতে প্রথা অনুযায়ী বিয়ের অনুষ্ঠানের জন্য সোনা কেনা বজায় থাকলেও সাধারণ মানুষকে যে অর্থনৈতিক সমস্যার মুখোমুখি হতে হবে সে কথা ধ্রুব সত্য।

Related Articles