Tuesday, December 7, 2021

ভালো নেই শরীর, শয্যাশায়ী হয়ে পড়েছেন অঙ্কুশ, খুব তাড়াতাড়ি অভিনেতার শরীরে অস্ত্রোপচার হতে চলেছে

বহুকাল আগে অভিনেতা অঙ্কুশ হাজরার পা ভেঙেছিল। পা ভেঙে ছিল ‘ডান্স বাংলা ডান্স’ রিয়েলিটি শো-এর শুটিং করা কালীন। নিজের পায়ে যে ফ্র্যাকচার হয়েছে তিনি সেটা জানতেন ও। তবে সেই ভাঙ্গা পা নিয়েই চালিয়ে গেছেন এক মাসেরও বেশি সময় ধরে শুটিংয়ের কাজ। সিনেমার শুটিং এর কাজের পাশাপাশি ছিল রিয়্যালিটি শো-এর সঞ্চালনার কাজ ও। সবকিছুই লাগাতার চালিয়ে গেছেন। সব সর্তকতা অবলম্বন করে কাজ করলেও সেই কীর্তির মাশুল দিতে হচ্ছে তাকে। তার প্রায় অসম্ভব ব্যথা বেড়ে যাওয়ায় শুটিং বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। বর্তমানে প্রায় শয্যাশায়ী হয়ে গিয়েছেন অভিনেতা।

এ প্রসঙ্গে এক সংবাদমাধ্যমকে অভিনেতা অঙ্কুশ হাজরা (Ankush Hazra) জানিয়েছেন, বর্তমানে তার পায়ের ব্যথা এতটাই তীব্র হয়েছে যে তিনি পা নাড়াতে পর্যন্ত পারছেন না। এর সাথে রয়েছে মারাত্মক যন্ত্রনা। আপাতত তাকে ১০ দিনের মত সম্পুর্ন বৃষ্টিতে বলা হয়েছে চিকিৎসক এর পক্ষ থেকে। সেই নির্দেশ একদম অক্ষরে অক্ষরে পালন করে চলেছেন অভিনেতা অঙ্কুশ হাজরা। অভিনেতা অঙ্কুশ হাজরা কথাতেই জানা গিয়েছে, সার্জারির প্রয়োজন হতে পারে। সবটুকুই নির্ভর করবে আগামী ১০ দিনের বিশ্রাম নেওয়ার ওপর। তাঁর পায়ের অবস্থা ঠিক কি রকম থাকে সেই ওপর নির্ভর করবে সার্জারির সিদ্ধান্ত। এর মধ্যে রয়েছে ‘লাভ ম্যারেজ’ সিনেমার কাজ ও। শুটিং বন্ধ থাকায় মন খারাপ তার। অঙ্কুশ জানিয়েছেন, ‘বাধ্য হয়েই ছবির শুটিং লাভ মেরেজ এর শুটিং কয়েক দিন বন্ধ রাখতে হবে। কারণ ছোট অবস্থা খুবই খারাপ।’ লাভ ম্যারেজ ছবিতে তাঁর বিপরীতে অভিনয় করতে দেখা যাবে অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা সেন কে।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Ankush (@ankush.official)

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গতকাল শনিবার নিজের ইনস্টাগ্রাম দেওয়ালের নিজের শারীরিক অবস্থার অবনতির কথা নিজেই জানিয়েছেন অভিনেতা অঙ্কুশ হাজরা। সঙ্গে যোগ করেছেন প্লাস্টার করা তার ভাঙ্গা পায়ের ছবি। সাথে ভাঙ্গা পা নিয়েই তিনি কাজ করেছেন প্রায় ৫০ দিনের মতো। করতে হয়েছে না রকম স্টান্টও। অভিনেতা আরো লেখেন, ‘কিছুটা দায়িত্বহীনের মতো কাজ করেছি বটে। তবে উপায় ছিল না। বিরতি নেওয়ার মতো পরিস্থিতিই ছিল না। আশা করি, আপনাদের ভালোবাসা এবং প্রার্থনার জেরে দ্রুত সুস্থ হয়ে কাজে ফিরতে পারব’

⚡ Trending News

আরও পড়ুন