×
বিনোদন

টলিউডের যেসব সেলেব এক-দুবার নয় তিন তিনবার বিয়ে করেছেন, দেখুন তাদের তালিকা

Advertisements
Advertisements

সিনেমার পর্দায় যেমন একের পর এক বিয়ের দৃশ্য দেখানো হয়। ঠিক তেমনই টলিউড এর নায়ক- নায়িকাদের মধ্যে এমন কেউ কেউ আছেন যারা এক বারের বিয়েতে সুখী হননি। দুইবার থেকে তিনবার বসতে হয়েছে তাঁদের বিয়ের পিঁড়িতে। তাঁদের সংসার তাসের ঘরের মতোই ঠুনকো হয়ে দাঁড়িয়েছিল। আর যারফলে একাধিক বার সাংসারিক জীবনের ভাঙা গড়ার মধ্যে দিয়ে যেতে হয়েছে তাঁদের।

Advertisements

তবে, কি কারনে তাঁদের সম্পর্কে বিচ্ছেদ হয়েছে একথা বলতে গেলে উঠে আসবে অবিশ্বাস, সন্দেহ ও পরকীয়ার মতো ইত্যাদি বিষয়গুলি। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক টলিউডের সেইসব তারকাদের ব্যাপারে।

১.প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়: টলিউড জগতের অন্যতম জনপ্রিয় নায়ক হলেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। ১৯৯৩ সালে তিনি প্রথমবার অভিনেত্রী দেবশ্রী রায়ের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। কিন্তু বিয়ের দুবছরের মাথায় অর্থাৎ ১৯৯৫ সালে তাঁদের ডিভোর্স হয়ে যায়। এরপর ১৯৯৭ সালে অভিনেত্রী অপর্ণা গুহঠাকুরতার সঙ্গে সাতপাকে বাধা পড়েন অভিনেতা। কিন্তু সেই সম্পর্ক দীর্ঘস্থায়ী হয়নি। অবশেষে ২০০২ সালে তাঁদের ডিভোর্স হয়ে যায়। দ্বিতীয় বিয়ে ভাঙার পর মানসিক দিক দিয়ে খুবই ভেঙে পড়েন অভিনেতা। এরপর আবার ফেরেন অভিনয়ে। তারপরই অর্পিতা পালকে বিয়ে করেন অভিনেতা। তাঁদের একটি ছেলেও রয়েছে। বর্তমানে তাঁরা সুখী দাম্পত্য জীবন কাটাচ্ছেন।

২.রচনা ব্যানার্জি: বাংলা চলচ্চিত্র জগতের একজন জনপ্রিয় অভিনেত্রী হলেন রচনা ব্যানার্জি। সিনেমার পর্দায় এখন তাঁকে না দেখা গেলেও দিদি নাম্বার ১ এর মাধ্যমে তিনি একই রকম ভাবে তাঁর জনপ্রিয়তা ধরে রেখেছেন। ওড়িশা সিনেমার জগতে কাজ করার সময় ভালোবেসে ওড়িয়া নায়ক সিদ্ধার্ত মহাপাত্রকে বিয়ে করেন তিনি। তবে, একবছরের মধ্যেই তাঁরা এই সম্পর্কের ইতি টানেন। এরপর অভিনেত্রী ব্যাবসায়ী প্রবল বসুকে বিয়ে করেন। তাঁদের একটি ছেলে ও আছে। তাঁর নাম প্রনীল। তবে, কিছুদিন আগে গুঞ্জন উঠেছিল রচনা-প্রবাল বসু র ডিভোর্স হতে চলেছে। আর সেটাও অভিনেত্রীর অন্য আরেকটি সম্পর্কের কারণে। তবে, এ বিষয়ের প্রকৃত সত্য এখনও অবধি জানা যায়নি।

৩. শ্রাবন্তী চ্যাটার্জী: বাংলা চলচ্চিত্র জগতের সুন্দরী ও মিষ্টি নায়িকাদের তালিকায় প্রথমেই রয়েছে শ্রাবন্তীর নাম। টিভির পর্দায় একটি সিরিয়াল দিয়েই তাঁর অভিনয় জগতের পথচলা শুরু হয়। এরপর পরিচালক রাজীব বিশ্বাস এর সঙ্গে বিয়ে হয় তাঁর। আর তারপর থেকেই একের পর এক হিট সিনেমা উপহার দেন দর্শকদের। কিন্তু তাঁদের ছেলে ঝিনুক হওয়ার পর বেশিদিন আর টেকেনি তাঁদের সম্পর্ক। বিচ্ছেদ হয় দুজনের। এরপর কৃষ্ণ ব্রজ নামে এক মডেলকে বিয়ে করেন অভিনেত্রী। কিন্তু বছর যেতে না যেতেই সে সম্পর্কে চিড় ধরে। এরপর তিনি রোশন সিং নামে একজনকে বিয়ে করেন। তবে, সে সম্পর্কেরও এখন টালমাটাল দশা। দুজনের ডিভোর্স না হলেও তাদের সম্পর্ক যে ভাঙ্গনের পথে তা বলা যায় বৈকি।

৪. স্বস্তিকা মুখার্জি: এককালে বাংলা সিনেমা জগতের আরও একজন জনপ্রিয় অভিনেত্রী ছিলেন স্বস্তিকা মুখার্জি। তিনি হলেন প্রয়াত অভিনেতা সন্তু ঘোষ এর মেয়ে। ১৯৯৮ সালে প্রমিত সেন এর সঙ্গে বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হন অভিনেত্রী। তবে, তাঁদের সম্পর্ক টেকেনি বেশিদিন। ২০০৪ সালের অভিনেতা জিৎ এর সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান তিনি। আর সেই সময় ডিভোর্স দেন স্বামীকে। তবে, কানাঘুষো শোনা যায় যে, স্বস্তিকা ও জিৎ এর সম্পর্ক নাকি বিয়ে অবধি গড়িয়েছিল। কিন্তু কোন কারণে তাঁদের আর বিয়ে হয়নি। তবে, এককালে পরিচালক সৃজিত মুখার্জির সঙ্গেও তাঁর সম্পর্ক রয়েছে বলে শোনা গিয়েছিল। অভিনেত্রীকে সুমন মুখোপাধ্যায় এর সঙ্গে লিভ ইন সম্পর্ক রাখার কথাও উঠেছে চর্চায়।

Advertisements