ভক্তদের আবদারে জুটি বাঁধতে চলেছে মীর স্বস্তিকা, দেখা যাবে স্বামী-স্ত্রীর ভূমিকায়

Bengali Actor

বাস্তব জীবনে একে-অপরের খুব পরিপূরক তাঁরা। দুজনেই ভীষণই স্পষ্টবাদী। তবে দুজনেই সিনেমার মানুষ, একজন জনপ্রিয় Radio Jocky আর একজন জনপ্রিয় অভিনেত্রী। তবে খাওয়ার দিক দিয়ে দুজনেই একেবারে স্বয়ং সমৃদ্ধ। কিছুদিন আগেই Foodka এক এপিসোডে দুজনেই ব্যারাকপুর থেকে ঘুরে গিয়েছেন। খেয়ে গিয়েছেন ব্যারাকপুরের বিখ্যাত রেস্তোরাঁ দাদা-বৌদি আর ডি বাপি হোটেলের বিরাযানী।

এখনো বুঝতে পারছেন না, তাঁরা কে! হ্যাঁ, কথা হচ্ছে ঘনিষ্ঠ বন্ধু মীর (Meer) আর স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়কে (Swastika Mukherjee) নিয়ে। তাঁরা একসঙ্গে অভিনয় থেকে শুরু করে নানারকম এপিসোডও করেছেন। কিন্তু বহুদিন ধরেই দুজন কে একই সঙ্গে অভিনয় করতে দেখা যায়নি। তবে তাঁদের ভক্তদের আব্দারে আবারো একসাথে অভিনয়ও করেছেন এই দুই তারকা। তাও আবার পরিচালক অভিজিৎ দাসের ছবিতে স্বামী ও স্ত্রীর চরিত্রে দেখা দিতে চলেছে মীর এবং স্বস্তিকা। ছবির নাম ‘বিজয়ার পরে’। তবে মীর একজন ভালো অভিনেতার পাশাপাশি কিন্তু একজন কৌতুক মানুষ।

যদিও মীর-স্বস্তিকার ঘনিষ্ঠ বন্ধুত্বের বিষয়ে ইন্ডাস্ট্রি খুব পরিচিত। এমনকি দুজন দুজনের বাড়িতে বেশ যাতায়াত করেন, বিভিন্ন অনুষ্ঠানেও যোগ দেন তাঁরা। ঋতু পরিবর্তনের মতন মানুষের জীবনও একসময়ে বদলে যায়। সেই নিয়েই পরিচালক অভিজিৎ দাসের এই ছবি, তবে এই ছবির পুরোটাই দুর্গাপুজোর প্রেক্ষাপটে তৈরি হবে। মীর আর স্বস্তিকা ছাড়াও এই ছবিতে আরো গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন মমতা শঙ্কর ও দীপঙ্কর দে। ছবি নিয়ে মীর জানিয়েছেন, ‘‘প্রায় চার বছর পর স্বস্তিকার সঙ্গে আবার কাজ করছি। শেষ ছবি করেছিলাম ‘মাইকেল’।

মমতা শংকরের সঙ্গে আমার কোনও দিন কাজ করা হয়নি। ‘বিজয়ার পরে’ সেই সুযোগ করে দিল।’’ পাশাপাশি এই ছবি নিয়ে পরিচালক অভিজিৎ জানালেন, ‘ছবিটি আদ্যন্ত একটি ফ্যামিলি ছবি। পরিচালক হিসাবে অভিজিতের এটা প্রথম ছবি। ও কী চায় তা নিয়ে ওঁর একটা স্পষ্ট ধারণা আছে। স্বস্তিকা, মমতা শংকর, দীপঙ্কর দে সবার সঙ্গেই কাজ করার জন্য মুখিয়ে আছি।’’