বিনোদন

সিনেমা করার উদ্দেশ্যে বৃহন্নলা হয়ে গেলেন বলিউডের এই জনপ্রিয় অভিনেতা!

বিনুনি করা চুলের মধ্যে ফুলের একটা বড়ো মেলা, চোখ ঝলসানো কমলা রঙের শাড়ি, মানানসই ব্লাউজ, হাতে কিছু চুড়ি, এবং গলায় মঙ্গলসূত্র, কপালে টিপ, আর হাতে মুড়িয়ে রাখা ১০ টাকার কিছু নোট। লোকাল ট্রেনের দরজায় দাড়িয়ে আছেন এক বৃহন্নলা। বিষয়টা খুবই স্বাভাবিক লাগলেও, মুখটা দেখলেই একেবারে চক্ষু চড়কগাছ। মুখটা খুবই চেনা চেনা গোছের। কোথায় যেনো দেখেছি মনে করতে করতেই চোখের সামনে ভেসে উঠবে কিছু কমেডি চরিত্র। হাঙ্গামা ছবিতে সেই মার খাওয়া গ্রামের ছেলেটি হোক কিংবা মালামাল উইকলি ছবিতে পাড়ার ফুটো মস্তান ছেলেটা, এত চরিত্রে তাকে ভারতের মানুষ দেখেছেন, যে বলে শেষ করা যাবেনা। তিনি হলেন বলিউডের এক সময়ের কমেডি কিং রাজপাল যাদব।

কিন্তু তিনি হঠাৎ বৃহন্নলা সেজেছেন কেনো? সাত পাঁচ ভাবতে হবেনা। আসলে তিনি এখন কাজ করছেন, তার নতুন ছবি অর্ধ নিয়ে এবং সেখানেই তাকে দেখা যাবে এক বৃহন্নলা ওরফে রূপান্তরকামী চরিত্রে। আর ছবির নাম থেকেই খানিকটা বোঝা যাচ্ছে, এই ছবির প্লট বা কাহিনী কি নিয়ে তৈরি। আদতে হিন্দু ধর্মে শিবকে অর্ধনারীশ্বর হিসাবে পুজো আমরা করলেও রাস্তায় কোনো রূপান্তরকামী কিংবা বৃহন্নলা দেখলেই আমাদের পুরো শরীরেই কেমন যেনো একটা বিরক্তি চলে আসে। বিশেষ করে আপনি যখন আপনার স্পেশাল মানুষটির সঙ্গে ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালের পাশের রাস্তাটার ফুটপাথ দিয়ে হাঁটছেন, সেই সময়ে যদি তাদের দর্শন হয় তাহলে তো আর কথাই নেই।

তবে, তাদের জীবনেও কি কোনো বাসনা নেই? তারাও কি আপনাকে এভাবেই বিব্রত করতে চান? তাদের দিক থেকে কেউ বিষয়টাকে ভেবে দেখেনা। রাস্তায় কোনো বৃহন্নলা চোখে পড়লেই অনেকেই তাদের দিকে বাঁকা নজর দেন, প্রতিনিয়ত হাসি-ঠাট্টা-তামাশার খোরাক হন তারা। রোজকার জীবনযুদ্ধে তাদের প্রবল সংগ্রাম চালিয়ে তাদের জীবনটা চালাতে হয়। আর বৃহন্নলাদের সেই গল্পই এবারে ছোট স্ক্রীনে তুলে ধরবে রাজপাল যাদবের নতুন প্রজেক্ট অর্ধ। বৃহস্পতিবার সেই সিনেমার পোস্টার সোশাল মিডিয়ায় প্রকাশ করা হয়েছে। এই ছবি দেখে ইতিমধ্যেই বেশ কৌতূহলী দর্শক। এতদিন পর্যন্ত যে তারকাকে বিভিন্ন জায়গায় মনোরঞ্জন করতে এবং কৌতুক করতে দেখা গেছে, সেই তারকা এবারে একটা এত ভারী চরিত্রে! ব্যাপারটা শুধু রাজপাল যাদবের ভক্তদের জন্য না, ভারতের প্রত্যেক ফিল্মের পোকার কাছেই খুবই আকর্ষণের হতে চলেছে।


যদিও সিনেমা হলে এই ছবি রিলিজ করবে না। ওয়েব মাধ্যমেই এই ছবি আপনারা দেখতে পাবেন। রাজপাল যাদব এমনিতেই একজন ভীষণ ভার্সেটাইল অভিনেতা। তার মধ্যে আবার এরকম একটা সেনসিটিভ চরিত্র দর্শকদের মধ্যে উৎসাহের পারদ একেবারে চরমে। রাজপাল ছাড়াও এই ছবিতে অভিনয় করতে চলেছেন হিতেন তেজ্বানি, কুলভুষণ খারবান্দা এবং রুবিনা দিলাইক। হিতেন এবং রুবিনা যথাক্রমে রাজপালের বন্ধুর চরিত্রে অভিনয় করবেন। অন্যদিকে মিউজিক কম্পোজার পলাশ মুছল এই ছবির পরিচালক হয়েছেন। এই সিনেমা দিয়েই পরিচালনায় হাতেখড়ি করছেন তিনি। পরিচালক নিজেই যখন মিউজিক কম্পোজার, তাই এই ছবিতে গানের একটা বিশেষ জায়গা থাকবেই। প্রসঙ্গত, এই ছবির শুটিং শুরু হয়ে গিয়েছে ইতিমধ্যেই। ২০২২ সালেই মুক্তি পাওয়ার অপেক্ষায় রাজপাল যাদবের এই নতুন সিনেমা।

Related Articles