ছোটবেলায় মা-বাবাকে হারান সবার প্রিয় জবা, পল্লবীর জীবনকাহিনী হার মানাবে সিনেমার গল্পকে


বর্তমান সময়ে বাংলা ধারাবাহিকের জনপ্রিয়তা তুঙ্গে। মা-কাকিমারা সন্ধ্যের পর থেকেই টিভির সামনে বসে পড়েন, তাদের পছন্দের সিরিয়াল দেখার জন্য। আর তখন তাঁদের টিভির পর্দা থেকে যেন চোখই সরে না। অনেকেরই সেই পছন্দের সিরিয়ালের মধ্যে একটি হল “কে আপন কে পর” সিরিয়াল। টিভির পর্দায় জবার দুর্দান্ত অভিনয় দেখার জন্য মুখিয়ে থাকতো দর্শকরা। যদিও দীর্ঘ বহুবছর চলার পর এই সিরিয়াল বেশ কয়েকদিন আগেই শেষ হয়েছে।

এই ধারাবাহিকের মূল বিষয়বস্তু ছিল, বড়লোক বাড়ির সামান্য এক কাজের মেয়ে থেকে সেই বাড়ির বউ হয়ে কিভাবে সকলের মন জয় করে নিজের স্বপ্ন পূরণ করেছিল মেয়েটি। একসময় মা, ঠাকুমাদের কাছে জবা ই যেন আদর্শ মেয়ে, বৌমা, মা হয়ে উঠেছিল। এই অভিনেত্রীর আসল নাম পল্লবী শর্মা। রীতিমতো প্রথম সিরিয়ালেই বাজিমাত করেছেন তিনি। অসাধারণ অভিনয় দিয়ে দর্শকদের মনে সহজেই জায়গা করে নিয়েছিল জবা অর্থাৎ পল্লবী।

যদিও বেশ কয়েকদিন আগে এক অনুষ্ঠানে এসে পল্লবী বলেন যে, ক্লাস ২ তে পড়াকালীন তাঁর মা ব্রেন টিউমারে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। এরপর থেকে সে পিসির কাছেই মানুষ হন। তারপর তাঁর আইসিএসসি পরীক্ষার প্রথম দিনই মারা যায় তাঁর বাবা। তাঁরপরও সে এর মধ্যে দিয়েও পরীক্ষা দিয়ে ভালো রেজাল্ট করেন। এরপর স্কুল জীবন শেষ করে কলেজে ভর্তি হন।

আর তিনি এটাও বলেন যে তারপর পিসি যেহেতু অভিনয়ের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন তাই পিসির হাত ধরেই প্রথম স্টুডিও পাড়ায় পা রাখেন পল্লবী। আর তারপর সিরিয়ালে কাজ করার সুযোগ পান। তাঁর জনপ্রিয়তার জন্য তাঁকে এত ভালোবাসার জন্য দর্শকদের ধন্যবান জানান পল্লবী। আপাতত সে তাঁর দাদা-বৌদির সঙ্গেই থাকেন। অভিনেত্রীর জীবনের এই গল্প শুনে বারবার এটাই মনে হয় যে, পর্দায় হাসিমুখে অভিনয় করলেও মানুষের বাস্তবিক জীবনে কতটা কষ্টে ভরা থাকে।

আরও পড়ুন

ভাইরাল ভিডিও

⚡ Trending News

আরও পড়ুন