×
বিনোদন

অলকার দিকে এক দৃষ্টিতে তাকিয়েছিলেন, অস্বস্তিতে আমিরকে স্টুডিও থেকে বের করে দেন গায়িকা

Advertisements
Advertisements

১৯৮৪ সালে ‘হোলি’ ছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে বলিউডে ডেবিউ করেছিলেন আমির খান। তবে ১৯৮৮ সালে তাঁর চাচাতো ভাই মনসুর খানের পরিচালনায় তৈরি ‘কেয়ামত সে কেয়ামত তক’ ছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে দর্শকমহলে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিলেন তিনি। অভিনেতা তখন সবে মাত্র বলিউডে নিজের কেরিয়ার শুরু করেছেন। না তখনই মিস্টার পারফেকশনিস্টের তকমা তিনি পাননি। বাহ্যিক দিক থেকেও একজন পারফেক্ট হিরো ছিলেন আমির।

Advertisements

এই ছবিতে অসাধারণ অভিনয়ের মাধ্যমে শ্রেষ্ঠ নবাগত অভিনেতা হিসেবে আমির ফিল্মফেয়ার পুরস্কার ও নিতে নিয়েছিলেন। অন্যদিকে ১৯৮৮ সালে, সঙ্গীত শিল্পী অলকা ইয়াগ্নিক ও সবে তখন বলিউড জগতে প্রবেশ করেছেন। প্লেব্যাক সিঙ্গার হিসেবেই গায়িকা বিনোদন জগতে নিজের যাত্রা শুরু করেন। ’কেয়ামত সে কেয়ামত তক’ ছবিতে গানের মাধ্যমেই তিনি বলিউডের যাত্রা শুরু করেছিলেন।

এই ছবির জন্য স্টুডিওতে গানের রেকর্ডিং চলছিল। অলকা গান করছিলেন আর আমির কাঁচের ওপারে বসে শুনছিলেন আর গায়িকার দিকে বারবার তাকাচ্ছিলেন। কিন্তু এই বিষয়টি মোটেই পছন্দ করতে পারছিলেন না অলকা। আমিরের ওই কাজে, খুবই বিরক্তিবোধ করছিলেন গায়িকা। এই কারনে সঠিকভাবে মনোসংযোগ দিয়ে, গান পর্যন্তও গাইতে পারছিলেন না তিনি। তাই শেষ পর্যন্তও প্রচণ্ড রেগে গিয়ে গানের স্টুডিও থেকে আমিরকে বের করে দিয়েছিলেন আলকা।

সেই সময় অভিনেতা ও কোনও প্রকার কোনো কথা না বাড়িয়ে চুপচাপ বেরিয়ে গিয়েছিলেন স্টুডিও থেকে। তখন যদিও গায়িকা চিনতেন না আমিরকে। এরপর পরিচালক নাসির এসে, অভিনেতাকে স্টুডিওর ভিতরে প্রবেশ করিয়ে ছিলেন। তখন গায়িকা নিজের ভুল বুঝতে পেরে রীতিমত চমকে উঠেছিলেন। তবে এই ঘটনার পর আলকা, পরবর্তী সময়ে আমিরের কাছে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছিলেন।

Advertisements