Thursday, December 9, 2021

১৭ তম বিবাহ বার্ষিকীতে যীশুর সাথে নিজের বিয়ের ছবি শেয়ার করলেন নীলাঞ্জনা

বর্তমানে লাইম লাইটের দুনিয়াতে বন্ধনের থেকে বিচ্ছেদই বেশি চোখে পড়ে। সম্পর্ক গড়ার থেকে ভাঙনই বেশি। কিন্তু যারা একসাথে মিলেমিশে থাকে, একে অপরকে ভালোবাসে, তারা সারাটা জীবনই একসাথেই কাটিয়ে দিতে পারে। টলিউডে তেমনই এক জুটি যীশু সেনগুপ্ত ও নীলাঞ্জনা সেনগুপ্ত।

১৭ টা বছর এক ছাদের তলায় কাটিয়ে দেওয়ার পরেও তাদের ভালোবাসায় এতোটুকুও কমতি নেই, উল্টে বেড়েই চলেছে। তারা আজকালকার দম্পতিদের থেকে একেবারেই আলাদা। দু’জনেই একে অপরকে ভীষণ গুরুত্ব দেন। দীর্ঘ ১৭ বছর আগে যে সাত পাকে বাঁধা পড়েছিলেন, সেই বন্ধন অটুক করে টিকিয়ে রেখেছেন যীশু-নীলাঞ্জনা।

একসাথেই সেলিব্রেট করলেন তাদের ১৭তম বিবাহ বার্ষিকী। অভিনেতা স্বামী যীশুর প্রযোজক স্ত্রী নীলাঞ্জনা। দু’জনেই ভীষণ কর্মব্যস্ত মানুষ। অন্যদিকে দু’জনেই একে অপরের প্রতি খুবই পজেসিভ। এবছর বিবাহ বার্ষিকী পালনের ব্যাপারে নীলাঞ্জনা বেশ হতাশার সুরেই বলেন, ‘যিশু কাজে ব্যস্ত মুম্বইয়ে। আমি কলকাতায়। আলাদা উদযাপন কী করে সম্ভব’! তার সাথে নীলাঞ্জনা আরও জানান, যীশু ভীষণ অন্তর্মুখী মানুষ। তাই মুখ ফুটে কিছু বলেন না তিনি। এইদিন সকালেও তাদের একে অপরের সাথে কথা হয়েছে প্রতিটা দিনের মতোই। এর বেশি কিছুই হয়নি বলে জানান নীলাঞ্জনা।

তবে, যীশু এই দিন সোশ্যাল মিডিয়ায় তেমন কিছু শেয়ার না করলেও নীলাঞ্জনা তার ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে বিয়ের কিছু ছবিকে কোলাজ করে পোস্ট করেছেন। সেখানে বরকণে দু’জনকেই দেখা গেছে লাল বেনারসী ও লাল শেরওয়ানীতে। তার সঙ্গে ক্যাপশনে নীলাঞ্জনা তার স্বামী যীশুকে ১৭তম বিবাহ বার্ষিকীর শুভেচ্ছাও জানিয়েছেন। বিবাহ বার্ষিকী প্রসঙ্গে নীলাঞ্জনা জানান, ‘যিশু কোনও দিন ওর মা-বাবাকে আলাদা হতে দেখেনি। আমিও না। আমাদের কাছে বিবাহিত জীবনের সংজ্ঞা এটাই। ভাল-মন্দ যা-ই আসুক, আমরা হাত ছাড়ব না। তাই এক সঙ্গে ১৭ বছর কাটানো সাফল্য নয়, আমাদের কাছে খুবই স্বাভাবিক ঘটনা’। একেই বলে অটুট বন্ধন।

⚡ Trending News

আরও পড়ুন