‘ইংরেজ তো চালে গায়ে, পিছে ইনকো ছোড় গেয়ে’ – উক্তিট"/>
বিনোদনভাইরাল ভিডিও

কালো প্যান্ট ও ব্লেজারে রকস্টার ভুবন বাদ্যকর, বার-এ গান গেয়ে কটাক্ষের স্বীকার বাদাম কাকু

‘ইংরেজ তো চালে গায়ে, পিছে ইনকো ছোড় গেয়ে’ – উক্তিটি শুনেছেন নিশ্চয়ই। এমন কিছু জায়গা বা জিনিস আছে যা দিয়ে আজও মানুষের ‘স্টেটাস’ মাপা হয়। যেমনটা কলকাতার বিখ্যাত ‘সামপ্লেস এলস’ ক্লাব। সবাই যেতে না পারলেও, কমবেশি ‘বাবুদের’ পাব কাম বার এই সামপ্লেস এলস ক্লাব (Someplace Else Club)-এর নাম শুনেছেন নিশ্চয়! এই ক্লাব এখন লাইমলাইটে আছে। কেন জানেন?
কালো প্যান্ট ও ব্লেজারে রকস্টার ভুবন বাদ্যকর, বার-এ গান গেয়ে কটাক্ষের স্বীকার বাদাম কাকু

শুক্রবার অর্থাৎ, গতকাল রাতে এই ক্লাবের স্টেজে গান করতে দেখা যায় ভাইরাল ভুবন বাদ্যকারকে (Bhuban Badyakar)। কালো প্যান্ট ও ব্লেজারে তিনি সম্পূর্ণ অন্যভাবে ধরা দিলেন সবার সামনে। শুরুতে ‘জয় রাধে’ দিয়ে নিজের পারফরম্যান্স শুরু করলেন তিনি। এরপর ‘কাঁচা বাদাম’ (Kacha Badam) গানটিও গেয়েছেন।

তবে নেটিজেনদের একাংশ বেজায় চটেছেন এই নিয়ে। ‘কিভাবে একটা ঐতিহ্যবাহী জায়গায় ভুবন বাবু গান গাইলেন’, ‘আমি কাউকে অপমান করতে চাই না, তবে সব জায়গা সবার জন্য নয়’, ‘এটা কি সেই জায়গা যেখানে এক সময় কিংবদন্তিরা গান গেয়েছেন’ – এমন ধরণের কটাক্ষ এসেছে নেটিজেনদের থেকে

কালো প্যান্ট ও ব্লেজারে রকস্টার ভুবন বাদ্যকর, বার-এ গান গেয়ে কটাক্ষের স্বীকার বাদাম কাকু

মূলত ব্রিটিশ আমলের এই ক্লাব কলকাতার সবথেকে জনপ্রিয় বার বলা যায়। যেখানে প্রথম খাওয়া-দাওয়া ও লাইভ গান শোনার ব্যাবস্থা চালু করা হয়েছিল। সেখানে দেখা গেছে ভুবন বাবুকে গান করতে। আবার অনেক মানুষ তার এই প্রতিভাকে কুর্নিশ জানিয়েছেন। আগামীতে আর কোন কোন জায়গায় ‘কাঁচা বাদাম’ স্রষ্টা ভুবনকে দেখা যায় তা সময়ই বলে দেবে।

Related Articles