বিনোদন

ছাত্রী থেকে পাত্রী! দিদি নম্বর ১ এর মঞ্চে প্রকাশ্যে এল মদন মিত্রের প্রেম কাহিনী, ভাইরাল ভিডিও

সম্প্রতি বাংলার টপ রিয়্যালিটি শো ‘দিদি নং ওয়ান’ এর মঞ্চে উপস্থিত হয়েছিলেন সস্ত্রীক মদন মিত্র। যিনি কিনা পরিচয়ের দিক দিয়ে কামারহাটির বিধায়ক হলেও তাঁর পরিচিতি এখন ইন্টারনেটের টপ সেনসেশন রূপেই। তবে তাঁর রঙিন জীবনের সম্পর্কে সকলের ওঠা-বসা থাকলেও তাঁর স্ত্রীর সম্পর্কে কিছুই জানা ছিলনা দর্শকদের। এবার দিদি নং ওয়ান-এর মাধ্যমেই লাইমলাইটে উঠে এলেন মদন মিত্রের স্ত্রী অর্চনা মিত্র। দিদির সামনেই ফাঁস হল বউ অর্চনা মিত্রর সঙ্গে কালারফুল বয়ের প্রেমকাহিনী।

জানা গেল, অর্চনাকে নাকি ইংরেজি পড়াতেন মদনবাবু। আর তারপরই ছাত্রীকে পাত্রী বানিয়ে ফেলেন ওহ লাভলী প্রবক্তা! পাশাপাশি মদনের ভালো এবং খারাপ গুনের কথাও জানালেন অর্চনা। মদন নাকি একটুতেই রেগে যান, আবার রাগ পড়ে গেলে বউকে গানের মাধ্যমে কাছেও টেনে নেন।

এরপরেই দিদির প্রশ্ন ছিল অর্চনাদেবীকে, আপ্নার স্বামী এত মহিলাদের ক্রাশ, আপনার রাগ হয়না বা কোনো সন্দেহ হয় না! তখন অর্চনাদেবী সপাটে উত্তর দিয়ে বসেন, ‘যতই ঘুড়ি ওড়াও রাতে, লাটাই তো আমার হাতে’! যা শুনে হেসে মদন দিয়ে ফেলেন তাঁর বিখ্যাত ডায়লগ, ‘ওহ লাভলি’! সেই শুনে উপস্থিত সকলে হেসেই কুপোকাত। এমনকি অর্চনাদেবী আরও জানান, সেই সময়েও বিয়ের পর দার্জিলিংয়ে হানিমুনে আমাকে নিয়ে গিয়েছিলেন মদন মিত্র। সুতরাং বোঝাই যাচ্ছে, মদন আর অর্চনার কেমিস্ট্রি এক্কেবারে জমে ক্ষীর। রাজনীতির ময়দানে লড়াই করা মানুষটার প্রেমিক প্রেমিক হাবভাব চেটেপুটে উপভোগ করলেন সেইদিন ‘দিদি নম্বর ১’র এপিসোডে উপস্থিত থাকা সস্ত্রীক বাবুল সুপ্রিয়, শিবাজী চট্টোপাধ্যায় ও রাঘব চট্টোপাধ্যায়।

Related Articles