×
বিনোদন

বর্ধমানের সাধারণ ঘরের মেয়ে থেকে সুপারহিট নায়িকা, সিনেমার গল্পকে হার মানাবে শুভশ্রী গাঙ্গুলীর জীবন কাহিনী

Advertisements
Advertisements

শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায় বর্তমানে টলিউডের একজন প্রথম সারির অভিনেত্রী। তিনি টলিউডের একজন অন্যতম অভিনেত্রী হওয়ার পাশাপাশি টলিউডের জনপ্রিয় পরিচালক রাজ চক্রবর্তীর ঘরনীও। তবে জানেন কি শুভশ্রী কিভাবে টলিউডের নায়িকা হয়ে উঠলেন? আজ সেই গল্পই আপনাদের বলব।

Advertisements

বহু সাধারণ মেয়েই স্বপ্ন দেখে নায়িকা হওয়ার। গ্ল্যামার ওয়ার্ল্ড এর সাথে যুক্ত হয়ে নিজেকে পর্দায় দেখায় আকাঙ্ক্ষা নিয়ে অনেকেই নায়িকা হওয়ার জন্য স্ট্রাগেল করে থাকেন। শুভশ্রীও একটা সময় প্রচুর স্ট্রাগেল করেছেন। শুভশ্রীর নায়িকা হওয়ার পথটা খুব একটা সুগম ছিল না। আজ থেকে পনের বছর আগে প্রতিদিন স্ট্রাগেল ছিল শুভশ্রীর জীবনে। সুদূর বর্ধমান থেকে কলকাতায় এসেছিলেন অভিনেত্রী হওয়ার স্বপ্ন নিয়ে।


2006 সালে আনন্দলোক নায়িকার খোঁজ জিতেছিলেন শুভশ্রী। আর সেখান থেকেই যাত্রা শুরু করেন 2008 সালে উড়িয়া ফিল্ম ‘মাতে লা লাভ হেলারে’ দিয়ে। অভিনয় জীবনের প্রথম দিকটায় নিজের পরিবারের কেবল মা ও দিদিকে পাশে পেয়ে ছিলেন শুভশ্রী। পরিবারের সকলেই যেহেতু চাকুরীজীবী সেই কারণে বাড়ির মেয়ে নায়িকা হবে এই বিষয়ে কারোরই মত ছিলনা।


প্রতিদিন বর্ধমান থেকে কলকাতায় আসতেন অডিশন দিতে। এইভাবে বহুদিন চলার পর অবশেষে হঠাৎ করেই প্রভাত রায়ের সিনেমা ‘পিতৃভূমি’তে অডিশন দেওয়ার পর চান্স পেয়ে যান শুভশ্রী। এই ছবিতে জিতের বোনের ভূমিকায় দেখা যায় অভিনেত্রীকে। সেই সিনেমায় জিতের বিপরীতে নায়িকা হিসেবে ছিলেন স্বস্তিকা মুখার্জি। এর পরে 2008 সালে ‘বাজিমাত’ সিনেমা সোহমের বিপরীতে নায়িকার চরিত্রে আত্মপ্রকাশ ঘটে শুভশ্রীর। সে বছর বাংলা ইন্ডাস্ট্রির শ্রেষ্ঠ নবাগতার পুরস্কার পেয়েছিলেন তিনি।

আর এরপরেই শুভশ্রী দেবের বিপরীতে চ্যালেঞ্জ সিনেমায় অভিনয়ের সুযোগ পান। ব্যাস, আর পিছনে ঘুরে তাকাতে হয়নি অভিনেত্রীকে। একের পর এক ব্লকবাস্টার সিনেমা অভিনয় করতে দেখা গেছে শুভশ্রীকে। প্রতিটি ছবিতে

Advertisements