৯১ বছর বয়সেও অসাধারণ গলা, দুর্দান্ত গান গেয়ে দর্শকদের মুগ্ধ করলেন লতা মঙ্গেশকর, ভিডিও ভাইরাল


ভারতবর্ষে সঙ্গীত জগতের মা সরস্বতী হলেন লতা মঙ্গেশকর। তাঁর অসাধারণ কন্ঠে মুগ্ধ বিশ্ববাসী। একমাত্র তাঁর গানের জন্যেই তিনি বিশ্ব ব্রহ্মাণ্ডে অবাধ বিচরণ তাঁর। বয়স তাঁর সত্তরের গন্ডী পেরিয়ে গেলেও তাঁর কন্ঠের কোনো পরিবর্তন হয়নি, তাঁর কুড়ি বছর বয়সেও যেমন কন্ঠ ঠিক সত্তর বছরেও একই কন্ঠ রয়েছে লতাজীর। তাঁর সুরেলা কণ্ঠের জাদু এখনও মানুষের মনে দেবী হিসেবে বিরাজ করে। একটা সময় একটার পর একটা হিট গান গেয়ে মানুষকে সঙ্গীতের মধ্যে ডুবিয়ে রেখেছিলেন এই কিংবদন্তি গায়িকা লতা মঙ্গেশকর। ভাই-বোনেদের মধ্যেই তিনিই সর্বপ্রথম সঙ্গীত জগতে নিজের রাজত্ব বিস্তার করতে পেরেছিলেন। তারপরেই তাঁর সমতুল্য হয়ে ওঠেন তাঁর বোন আরেক কিংবদন্তী গায়িকা আশা ভোঁসলে।

বর্তমানে তাঁর বয়স ৯১ বছর। তবে তাঁর যতই বয়স হোক না, বয়সের কোনো ছাপ পড়েনি তাঁর গানের গলায়। সম্প্রতি লতাজীর একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। যেখানে দেখা যাচ্ছে, স্টেজের মধ্যে দাঁড়িয়ে লাইভ পারফরম্যান্স করছেন লতা মঙ্গেশকর।

ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ্যে আসা মাত্রই ভাইরাল হয়েছে সর্বত্র। আর ভাইরাল না হয়েই বা যাবে কোথায়, যেখানে স্বয়ং লাইভ পারফরম্যান্স করছেন মা সরস্বতী লতা মঙ্গেশকার। তবে লতামঙ্গেসকারের এই ভিডিওটিও অনেক পুরনো। বর্তমানে এসব ভিডিও দেখেই মনের একটু শান্তি মেলে, আর এই সকল ভিডিওর জন্যে টেলিভিশনের উপর নির্ভর করতে হয়না, হাতে একটা মুঠোফোন যথেষ্ট।

লতা মঙ্গেশকর তাঁর গোটা ক্যারিয়ারে প্রায় ১০০০ এর বেশি গান উপহার দিয়েছেন। যার মধ্যে হিন্দি, বাংলা এই দুই ভাষারই গান রয়েছে। ১৯৮৯ সালে ভারত সরকার তাঁকে দাদাসাহেব ফালকে পুরস্কারে ভূষিত করেন। এছাড়া তার অসামান্য অবদানের জন্য ২০০১ সালে তাঁকে ভারতের সর্বোচ্চ সম্বার্ধনা ভারতরত্ন পুরস্কারে ভূষিত করা হয়। এছাড়া এম. এস. সুব্বুলক্ষ্মীর পর তিনিই এই পদকপ্রাপ্ত দ্বিতীয় সঙ্গীতশিল্পী। ২০০৭ সালে ফ্রান্স সরকার তাঁকে ফ্রান্সের সর্বোচ্চ অসামরিক সম্মাননা লেজিওঁ দনরের অফিসার খেতাবে ভূষিত করেছিলেনন। এছাড়া তিনি ৩টি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার, ১৫টি বাংলা চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতি পুরস্কার, ৪টি শ্রেষ্ঠ নারী নেপথ্য কণ্ঠশিল্পী বিভাগে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার, ২টি বিশেষ ফিল্মফেয়ার পুরস্কারসহ অসংখ্য পুরস্কার অর্জন করেছেন।

আরও পড়ুন

ভাইরাল ভিডিও

⚡ Trending News

আরও পড়ুন