এত ন্যাকামি সহ্য হয় না, গুনগুনের অতিরিক্ত নাটুকে অভিনয় দেখে ক্ষোভ প্রকাশ দর্শকদের


বর্তমানে ছোটো পর্দার বেশ জনপ্রিয় ধারাবাহিকগুলির মধ্যে শীর্ষে রয়েছে ‘খড়কুটো’ ধারাবাহিকটি। এই ধারাবাহিকের গল্পের জনপ্রিয়তার পাশাপাশি এই সিরিয়ালে অভিনীত অভিনেতা অভিনেত্রীদের পারিবারিক বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় দর্শকদের মন জয় করে নিয়েছে। খুব কম সময়ে স্টার জলসার চ্যানেল পরিচালিত এই ‘খড়কুটো’ ধারাবাহিকটি জনপ্রিয়তার দিক থেকে অন্যান্য ধারাবাহিককে রীতিমত টেক্কা দিয়ে চলছে।

এই ধারাবাহিকের শুরুতে দেখা গিয়েছিল সৌজন্যে এবং গুনগুন কেউই তাঁরা একে অপরকে পছন্দ করতেন না। কিন্তু শেষ পর্যন্তও গুনগুন একবছরের জন্য বিয়ে করে সৌজন্যে এবং তার গোটা পরিবারের সঙ্গে থাকতে রাজি হওয়ায় গুনগুন এই সৌজন্যের ধুমধাম করে বিয়ে ও দেয় সৌজন্যের পরিবার। তবে গুনগুণের শর্ত একটাই গ্র‍্যাজুয়েশন পরীক্ষায় একবার উত্তীর্ণ হয়ে যাওয়ার পর সে তার বাবার কাছে ফিরে যাবে। সে যাইহোক বিয়ের পর গুনগুনের সঙ্গে প্রথম দিকে সৌজন্যের সব বিষয় নিয়ে ঝামেলা হলেও পরে ধীরে ধীরে, সৌজন্যে গুনগুনের এই দুষ্টু মিষ্টি আচরণ গুলিকে ভালোবেসে ফেলে। এখন গুনগুন তার শ্বশুর বাড়ির লোকজনের কাছে হয়ে উঠেছে তাদের আদরের বউ মা।

তবে সৌজন্যে এবং গুনগুনের এই দুটি মিষ্টি প্রেমের গল্প দর্শকদের প্রথম দিকে ভালো লাগলে ও এখন এই ধারাবাহিককে গুনগুনের অতিরিক্ত ন‍্যাকা আচরন এই ধারাবাহিকের অনুগামীদের কাছে বিশেষ বিরক্তির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। সম্প্রতি নববর্ষের দিন এই সিরিয়ালে দেখানো হয়েছিল যে মিষ্টি অর্থাৎ এই ধারাবাহিকে গুনগুনের বৌদিভাই মা হতে চলছে তাই বাড়ির সবার অর্থাৎ বড় মা, ছোট মা, পুটু পিসি, কাকাই সবাই খুবই খুশি। তাই সে খুবই বমি করছে কিন্তু বিষয়টি গুনগুন বুঝতে উঠতে পারছে না তাই তাকে শেষ পর্যন্ত সৌজন্যে বুঝিয়ে বলছে যে মিষ্টির কি হয়েছে এবং সে কেনো বমি করছে। যদিও এরপর গুনগুন মিষ্টির মা হওয়ার খবর শুনে খুবই খুশি হয়েছে সে।

কিন্তু ধারাবাহিকে মিষ্টির মা হওয়ার বিষয়টি গুনগুনের বুঝতে না পারার কারণ নিয়ে দর্শকরা বিরক্তি প্রকাশ করেছেন। ধারাবাহিক প্রেমিদের মতে বর্তমানে এই সিরিয়ালে গুনগুনের অতিরিক্ত ন্যাকামো সম্বলিত অভিনয় তাদের কাছে বিরক্তিকর হয়ে উঠছে। এই ধারাবাহিকের অনুগামীদের মতে যেখানে গুনগুনের বাবা একজন বড় মাপের ডাক্তার অন্যদিকে গুনগুন ইংরেজি স্কুলে পড়াশোনা করে একজন প্রাপ্ত বয়স্ক মানুষ হয়েও মেয়েদের মাতৃত্বের বিষয় সম্পর্কে কি করে তার ধারণা নেই!? এখন এই বিষয় নিয়ে দর্শকদের মনে তুমুল প্রশ্ন জেগে উঠেছে। তাই ধারাবাহিকে সম্প্রতি দৃশ্যিত এই এপিসোডের কারণে দর্শকদের কাছে গুনগুনের অবুঝ মনের অভিনয় বড্ড বেশি নেকামো বলে মনে হয়েছে। তাই গুনগুনের এই অতিরিক্ত অবুঝ ন‍্যাকা অভিনয় এই ধারাবাহিকের ক্রমশ টিআরপি কমিয়ে দিচ্ছে বলে মনে করছেন দর্শকরা।

আরও পড়ুন

ভাইরাল ভিডিও

⚡ Trending News

আরও পড়ুন