×
বিনোদনভাইরাল ভিডিও

ঘুমের ওষুধ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা গুনগুনের, প্রবল সংকটের মুখে ‘খড়কুটো’ পরিবার, ভাইরাল ভিডিও

Advertisements
Advertisements

কেনো হঠাৎ আত্মহত‍্যার চেষ্টা করলেন তৃণা এমন কি ঘটলো যার জন্য তিনি এই পথ বেছে নিতে বাধ্য হলেন! সম্প্রতি খড়কুটো ধারাবাহিকে দেখানো হল, জ‍্যাঠাইয়ের ঘুমের ওষুধ খেয়ে আত্মহত‍্যার চেষ্টা করেছেন গুনগুন। দেখা যাচ্ছে গুনগুন জ‍্যাঠাইয়ের ঘুমের ওষুধের শিশি পুরো ফাঁকা করে দিয়েছেন এবং অচৈতন‍্য অবস্থায় পড়ে রয়েছেন তিনি। এক কথায় বলতে গেলে এত টুইস্ট দেখে দর্শক দের মনে হাজার প্রশ্নের সৃষ্টি করেছে।

Advertisements

প্রসঙ্গত, এই ধারাবাহিকে কিছুদিন আগে দেখানো হয় আত্মহত‍্যার চেষ্টা করেছেন আরেক চরিত্র দেবলীনা। কিন্তু কেনো সে এরকম করলো!! এই প্রসঙ্গে জানা যায় সুকল‍্যাণের বিয়ে নিয়েই এমন কাণ্ড ঘটিয়েছেন তিনি। আর তার পরেই দেখা গেলো সিরিয়ালের অন্যতম প্রধান চরিত্র গুণগুণ ও আত্মহত্যার চেষ্টা করলেন। শোনা যাচ্ছে যে, আসলে গুনগুন জানতে পারে যে, জ‍্যাঠাই নিজের মেয়েকে ত‍্যাজ‍্যকন‍্যা করেছেন। কিন্তু পুটুপিসির বারন না শুনেই সেই কথা গুণগুণ সরাসরি জিজ্ঞাসা করে ফেলে জ‍্যাঠাইকে। আর তার ফলেই জ‍্যাঠাইয়ের প্রচণ্ড ধমক খেতে হয় গুনগুনকে। মনে করা হচ্ছে, সেই অভিমানের কারণেই ভয়ঙ্কর পদক্ষেপ নিয়েছেন গুনগুন। যা দেখে রীতিমত হতবাক হয়ে গিয়েছেন দর্শকরা।

তবে, এক ধারাবাহিকে পর পর দুবার এই ধরণের স্পর্শকাতর বিষয় দেখানো হয়েছে বলে নেটিজেনরা তার তীব্র সমালোচনা করেছেন। এই কারণে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে ‘খড়কুটো’ নির্মাতাদের। আসলে বলতে গেলে বর্তমানে যুগে সোশ্যাল মিডিয়ায় এবং টেলিভিশনের জগতে যা দেখানো হয় তা অনেকটাই প্রভাব ফেলে আমাদের জীবনেও।

তাই বলা যেতে পারে যে, এই ধরণের বিষয় গুলো খুবই খারাপ প্রভাব ফেলতে পারে সমাজে। তাই, এই বিষয় গুলি নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় এক প্রকার তীব্র সমালোচনার ঝড় উঠেছে বললেই চলে।

Advertisements