নিউজবিনোদন

বছরের শেষে কেল্লাফতে! রইল TRP অনুযায়ী ধারাবাহিকের তালিকা

প্রকাশিত হয়েছে এই সপ্তাহের টিআরপি তালিকা। বছরের শুরু থেকেই বাজিমাত করে এসেছে জি বাংলা জনপ্রিয় ধারাবাহিক “মিঠাই”। বছরের শেষ সপ্তাহে নিজেদের জায়গা অটুট রাখল সিডাই কেমিস্ট্রি। অন্যদিকে স্টার জলসার খুকুমণি হোম ডেলিভারি শুরুর দিন থেকেই নিজেদের জায়গা পাকাপাকি করে নিয়েছে প্রথম দশে। খুকুমনির ঝাজ বজায় থাকল তালিকায়। প্রত্যাশিত মতোই স্টার জলসার নতুন ধারাবাহিক “গাঁটছড়া”শক্তপোক্ত জায়গা পেয়েছে। এক ঝলকে দেখে নিন এই সপ্তাহের টিআরপি তালিকা। শুকনো হাওয়ায় ভেঙে পড়েছে খরকুটোর ম্যাজিক।

১১.৯ পয়েন্ট পেয়ে প্রথম স্থানাধিকারী মিঠাই। বড়দিনের নতুন চমক উচ্ছে বাবুকে স্যান্টার কাছ থেকে গিফট হিসেবে পেয়ে আনন্দ আর ধরে না মিঠাই রানীর মনে। মনোহরা পরিবারের হইচই দেখতে ব্যস্ত দর্শকরা। অন্যদিকে রীতিমতো সেয়ানে সেয়ানে মিঠাই কে টেক্কা দিচ্ছে “খুকুমণি হোম ডেলিভারি”।৯.৯ পয়েন্ট পেয়ে দ্বিতীয় স্থানে বেশ জাঁকিয়ে বসেছে খুকুমণির রান্নার কেরামতি। বিহান রাজপুত্তুরের সঙ্গে তার বিয়ে বেশ উপভোগ করেছেন দর্শক।৯.০ পয়েন্ট পেয়ে তৃতীয় স্থানে যমুনা ঢাকি। গাঁজাখুরি গল্প দর্শকদের পছন্দ না হলেও জ্যোতি রুপি যমুনার অসুর নিধন পর্ব দেখতে দর্শক, তাকে দিয়েছে ৯.০ পয়েন্ট। চতুর্থ স্থানে যৌথভাবে “গাঁটছড়া” এবং “উমা”। একদিকে উমা অভির আকস্মিক বিয়ে, অন্যদিকে খড়ির কপালে ঋদ্ধিমানের ফ্লাইং সিঁদুর, দুজনের পয়েন্ট ৮.৯। প্রখ্যাত অভিনেত্রী দেবশ্রী রায় অভিনীত “সর্বজয়া” এবং “অপরাজিতা অপু” ৮.৫ পেয়ে যুগ্মভাবে পঞ্চম স্থানে।

ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে ঋষি চ্যাটার্জী এবং প্রিয়দর্শিনী মিত্রর প্রেমের উপাখ্যান। স্টার জলসার মিষ্টি ধারাবাহিক “মন ফাগুন”৮.০ পয়েন্ট সংগ্রহ করেছে। সপ্তম স্থানে জলসার আরেক ধারাবাহিক “ধূলোকণা” সংগৃহীত স্কোর ৭.৭। তারপর রয়েছে “খেলাঘর”। ভালোবাসার টানে সমস্ত অভিমান ভুলে ফের শান্টুর কাছে ফিরে এসেছে পূর্ণা। তাদের স্কোর ৭.৬। দুই বিসমবয়সী বন্ধু তোর কথা বলে “আয় তবে সহচরী”। শাশুড়ি বৌমার এই যুদ্ধের গল্প সহজেই দর্শকদের মনে জায়গা করে নিয়েছে। তাদের সংগৃহীত পয়েন্ট ৭.৫। টিআরপি তারিকা দশম স্থানে উঠে এসেছে জি বাংলার “করি খেলা”। বিপদ কাটিয়ে পারমিতা কারসাজিতে এক হয়েছে চৌধুরী পরিবার।

সব মিলিয়ে বছর শেষে টিআরপি তালিকা জমজমাট। তবে তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়েছে খরকুটোর মুখার্জি পরিবার। আবার কৃষ্ণকলির কামাল মুছে গেছে। জিবাংলা তুলনায় বেশ খানিকটা এগিয়ে গেছে স্টার জলসা।

Related Articles