রেগে গিয়ে বাবাকে ঘুষিয়ে দিল ‘তৈমুর’, বেগম ‘কারিনার’ বড় ছেলের আচরণে ক্ষিপ্ত নেটবাসি

Bollywood

বলিউডের সবথেকে জনপ্রিয় সেলিব্রিটি কিড তৈমূর আলি খান। তৈমুরের কাণ্ডকারখানা দেখার জন্য তার পিছন পিছন ঘোরে পাপারাজ্জির ক্যামেরা। এবার বাবাকে ক্যামেরার সামনে ঘুসি মারলো তৈমুর। ছেলের এমন বদমেজাজি স্বভাবের জন্য লজ্জায় মাথা কাটা গেল করিনার। কিন্তু হঠাৎ বাবার উপর এমন ছুটে গেল কেন ছোটে নবাব?

সইফের জন্মদিন উপলক্ষে একটু বেড়াতে গিয়েছিলেন , বার্থ ডে বয়,বেগম করিনা এবং তার দুই ছেলে । সেখানে হঠাৎ উত্তেজিত হয়ে পড়েন তৈমুর। বেশ ভালো মুডে খেলাধুলা করছিল সেই হঠাৎ করে সে চেয়ার ছেড়ে উঠে যায় এবং তার বাবা সামলাতে গেলে এলোপাথাড়ি ঘুষি মারেন। এই ঘটনা সঙ্গে সঙ্গে নজরবন্দি করেন ক্যামেরাম্যান। ব্যাস তারপর এই ভিডিও ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়। নেটিজেনরা ছোট্ট তৈমুরের তীব্র নিন্দা করেছেন। মায়ের শিক্ষা নিয়ে কটাক্ষ করেছেন তারা।

উল্লেখ্য এই প্রথম নয় এর আগে পাপারাজ্জির উপর রেগে গিয়ে ছবি তুলতে মানা করেছিলেন মায়ের আদরের টিমটিম। তাছাড়া তার ন্যানির উপর অত্যাচার শুরু করেছিলেন। এসব দেখে নেটিজেনরা কটাক্ষ করেন সইফ এবং করিনাকে। শুধু তাই নয় অনেকে দাবি করেন তৈমুর এখন আর ছোট নেই। যথেষ্ট বড় হয়েছে তাই তার বাবা-মাকে শিক্ষা দেওয়া উচিত। তবে এর পিছনে একটা মজাদার কারণ আছে বলে মনে করছেন অনেকে। সইফ নাকি বউয়ের সঙ্গে সম্পত্তির পঞ্চম ভাগীদার কথা বলছিলেন , তাই হঠাৎ মারমুখী হয়ে উঠেছে তার তৃতীয় সন্তান।কেউ কেউ বলছেন আদরে আদরে বাঁদর হয়েছে তৈমুর। তাই তার বাবা-মা তার উপর কোন দৃষ্টি দেয় না।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Viral Bhayani (@viralbhayani)

কিন্তু এবার ক্ষেপে গেছেন স্বয়ং অভিনেত্রী কারিনা কাপুর খান। তিনি জানান একজন শিশু যা ইচ্ছে করতে পারে। তার মানে এই নয় তাকে শেখানো হয়। তাই অনুরাগীদের এমন খারাপ মন্তব্য না করতে অনুরোধ করেছেন করিনা।