কি অদ্ভুত এই পৃথিবী তাই না? জন্মদিন উপলক্ষ্যে ‘সুশান্ত’ অনুরাগীদের জন্য রইল কিছু অজানা তথ্য!

Barry Jhon

সামান্য ব্যাকগ্রাউন্ড ড্যান্সার থেকে বলিউডের (Bollywood) প্রথম সারির নায়ক হয়ে উঠেছিলেন সুশান্ত সিং রাজপুত (Sushant Singh Rajput)। ১৯৮৬ সালের ২১শে জানুয়ারি বিহারের পাটনা শহরে জন্ম হয় অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত (Sushant Singh Rajput)-এর।
Barry Jhon
বোম্বেতে নিজের চেষ্টায়, কোনো ‘গডফাদার’ ছাড়াই হয়ে উঠেছিলেন পর্দার ‘ধোনি’। আজ তার ৩৬তম জন্মদিন। কিন্তু দুঃখের বিষয় হলো, অভিনেতা প্রয়াত হয়েছেন খুব কম বয়সেই। চলুন আজ তাঁর জন্মদিনে জেনে নেওয়া যাক, একজন ইঞ্জিনিয়ারিং ছাত্র থেকে বলিউডের স্টার হয়ে ওঠার গল্পটা ঠিক কেমন ছিল।
Barry Jhon
২০০৩ সালে সুশান্ত অল ইন্ডিয়া জয়েন্ট এন্ট্রান্স টেস্টে 7 Rank হাসিল করেছিলেন। তারপর Delhi Collage Of Engineering কলেজে Mechanical Engineering নিয়ে ভর্তি হন। এরপর কলেজের তৃতীয় বর্ষে বিখ্যাত ড্যান্সার Shiamak Davar-এর নাচের ক্লাসে ভর্তি হয়ে যান সুশান্ত। সুশান্তের নাচের মুভসগুলি অসাধারণ ছিল। যে কারণে খুব তাড়াতাড়ি Shiamak তাকে তার নাচের টিমে ব্যাকগ্রাউন্ড ড্যান্সার হিসাবে নিয়োগ করেন।
Barry Jhon
‘Dhoom 2’ সিনেমার বিখ্যাত গান ‘Dhoom Again’, ২০০৬ সালের Commonwealth Games-এ Aishwarya Rai-এর পিছনে নাচতেও দেখা গিয়েছিলো সুশান্তকে। তাছাড়াও IFFA ২০০৫ সালের মঞ্চেও ব্যাকগ্রাউন্ড ড্যান্সার হিসাবে নাচতে দেখা গিয়েছিলো তাঁকে।

তবে ২০১৫ সালে একটি সাক্ষাৎকারে সুশান্ত জানিয়েছিলেন – ‘আমি ও আমার বন্ধুরা মিলে বাদাম বেচতাম। সব হট মেয়েরা সেই বাদাম নিতো। তবে একদিন আমার বন্ধু বলেছিলো নাচের ক্লাসে নাকি এর থেকেও প্রচুর হট মেয়ে আছে। যে কারণে আমি Shiamak স্যারের ক্লাসে ভর্তি হয়েছিলাম’।
Barry Jhon
২০১৭ সালে Shiamak এক সাক্ষাৎকারে জানান – তিনিই নাকি প্রথম সুশান্তকে অভিনয় করার পরামর্শ দেন। কারণ তাঁর মধ্যে অভিনেতা হওয়ার একটা চার্ম ছিল। তিনি আরও বলেন – ‘সুশান্ত পড়াশুনা করতে চেয়েছিল। সবকিছু একসাথে কি করে করবে সেই পথই আমি ওকে দেখিয়েছিলাম’। এরপরেই Barry Jhon-এর এক্টিং ক্লাসে ভর্তি হয়ে যান সুশান্ত। যেখানে তিনি অভিনয় শিখতেন, সাথে সাথেই থিয়েটারে অ্যাক্টিংও করতেন।

২০১১-তে TOI-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সুশান্ত জানান – ‘Barry সেই মানুষ যে অভিনয়ের আসল মানে বুঝিয়েছেন আমাকে। প্রথম ছয় মাস কিছু বলেননি আমাকে তিনি। আমি অনেক ভুল করতাম। নিজের ডাইরিতে লিখে রাখতেন। তবে ছয় মাস পরে আমার গ্র্যাজুয়েশন কমপ্লিট হয়। যারা সারাদিন পড়াশুনা করতো তারা ‘সি’ গ্রেড পেয়েছিলো। আমি পেয়েছিলাম ‘বি’ গ্রেড। তখন তিনি আমাকে বললেন তুমি ভালো। নিজের কেরিয়ার অপশন হিসাবে অভিনয় নিয়েই এগিয়ে যেতে পারো।
Barry Jhon
তারপরেই সুশান্তের অভিনয় জীবনের যাত্রা শুরু। প্রচুর থিয়েটারে তিনি অভিনয় করেন। তার সাথেই জীবন চালানোর জন্য ছোট একটি কাজও করতেন। ততদিনে মুম্বাইতে শিফট হয়ে গিয়েছিলেন। Nadira Babbar-এর থিয়েটার দল ‘একজুটে’-তে টানা আড়াই বছর কাজ করেছেন তিনি। এরপরেই ‘Kis Desh Mai Hain Mera Dil’ ধারাবাহিকে সেকেন্ড লিড রোল পান সুশান্ত। ২০০৮ সালে এই ধারাবাহিকটি বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছিল। তার সাথেই তার অভিনয় প্রশংশিত হয়।
Barry Jhon
এরপর ‘Pavitra Rishta’ ধারাবাহিকে Manav Deshmukh-এর অভিনয় করেন। লিড রোলে তার অভিনয় সাড়া ফেলে দিয়েছিলো। এখানেই তার কো-ষ্টার অঙ্কিতা লোখান্ডে (Ankita Lokhande) সাথে আলাপ হয় ও দীর্ঘ সময়ের প্রেমের সম্পর্কে আবদ্ধ হন দুজনে।
Barry Jhon
২০১৩ সালে ‘Kai Po Che’ সিনেমা দিয়ে বড়ো পর্দায় আসেন সুশান্ত। ‘Suddh Desi Romance’, ‘Detective Byomkesh Bokshi’, ‘Raabta’, ‘PK’, ‘MS Dhoni -The Untold Story’, ‘Drive’ ও সবশেষে ‘Dil Bechara’-এর মতো সিনেমায় অভিনয় করেছিলেন তিনি। Ms Dhoni সিনেমার জন্য দেশ-বিদেশ মিলিয়ে তিনি মোট ছয়টি পুরস্কার পেয়েছিলেন। অল্প সময়ে তার দারুন কেরিয়ারের জন্য প্রচুর মানুষ তার ফ্যান হয়েছিলেন।
Barry Jhon
শুধু সিনেমা নয় দুটি নাচের অনুষ্ঠানেও বিজেতা হয়েছিলেন সুশান্ত সিং রাজপুত। ১৪ই জুন ২০২০ সালে এই অভিনেতার মৃত্যু হয়। তার অনুরাগীরা এখনও এই কথা মানতে পারেন না। আজ তার শুভ জন্মদিনে এই প্রতিদেবনের মাধ্যমে তাঁকে কুর্নিশ ও শ্রদ্ধা জানানো হচ্ছে।