টাকা খাইয়ে অর্কদীপকে জিতিয়েছেন ‘গুরুবোন’ ইমন! লাইভে ট্রোলারদের কটাক্ষের কড়া জবাব গায়িকার


সম্প্রতি রবিবার জী বাংলার পরিচালিত ‘সারেগামাপা ২০২০ নামক জনপ্রিয় রিয়েলিটি শো এর মঞ্চে জেতার হাতে তুলে নিয়েছেন অর্কদীপ মিশ্র। এই ঘোষণার পরেই শুরু হয়ে যায় নেটিজেনদের মধ্যে বিতর্ক। তাদের মতে নীহারিকা বা অনুষ্কা, এই রিয়েলিটি শো এর বিজয়ী হওয়ার যোগ্যতা অনেক বেশি রাখে অর্কদীপের তুলনায়। বিচারকদের কাছে অর্কদীপ এই ট্রফির যোগ্য হলেও, নেটিজেনরা এই বিষয়টি মেনে নিতে মোটেই রাজি নয়। আসলে অর্কদীপ একজন সারেগামাপা’র প্রতিযোগি হওয়ার পাশাপাশি হলেন গায়িকা ইমন চক্রবর্তীর “গুরু ভাই”। তাই অর্কদীপ এই মঞ্চে জয়লাভের পর গায়িকা তার ফেসবুক প্রোফাইলে, অর্কদীপকে উদ্দেশ্য করে লিখেছিলেন, “অর্কদীপ মিশ্র তোমায় নিয়ে আমি গর্বিত”। গায়িকার এই পোস্টকে কেন্দ্র করে গতকাল রাত থেকে আজ সকাল পর্যন্ত কমেন্ট বক্সে চলে তুমুল বিতর্ক।

নেটিজেনরা ইমনের করা পোস্টটিতে বিভিন্ন নেতিবাচক মন্তব্যে করতে থাকেন। এমন কি একজন সামাজিক মাধ্যম ইউজার এও মন্তব্য করে বসেন যে, গায়িকা ইমন চক্রবর্তী টাকা দিয়ে বা সারেগামাপা’র বিচারকদের টাকা খাইয়ে, তার নিজের “গুরু ভাই” এবং এই রিয়েলিটি শো এর মঞ্চে প্রতিযোগি অর্কদীপকে জিতিয়েছেন। তবে এই ধরণের নেতিবাচক মন্তব্যের পর আর চুপ করে থাকেননি গায়িকা ইমন চক্রবর্তী। তিনি এর উত্তর করে সোমবার দুপুরে লাইভে এসে নেটিজেনদের উদ্দেশে বলেন, কারোর পক্ষ হয়ে কিছুই বলব না শুধু বাস্তব কিছু কথা বলব।

তিনি বললেন, অর্কদীপ প্রথম হয়েছে সেই নিয়ে এত নেতিবাচক মন্তব্যে কেন? যদি অন্য কেউ প্রথম হতো তাহলে ও কি এইরূপ কটাক্ষ করতেন আপনারা? এর পাশাপাশি ইমন এও বললেন যে, ওই রিয়েলিটি শো এর মঞ্চে যারা বিচারকের আসনে বসে আছে তারা সবাই সঙ্গীত জগতের সঙ্গে বহুবছর ধরে যুক্ত এবং অনেক বেশি দক্ষ এবং অভিজ্ঞতা সম্পন্ন তাই তাদের নিয়ে এই ধরণের নোংরা মন্তব্য করবেন না। নিজেদের এতটা নিচে নামানোর আগে ভেবে দেখুন? এখানেই শেষ নয়, এরপর ইমন আরও বললেন যে, “অনেকের মতে আমি নাকি টাকা খাইয়ে অর্কদীপকে জিতিয়েছি। তাদের বলি আমার এতো টাকা নেই, আর আমি নিজের জন্য কোনোদিন টাকা খাওয়াইনি। যদি টাকা খাওয়ানোরই হত তাহলে তো আমার টিমের সকলকেই রেখে দিতাম! কেন এই ধরণের বাজে মন্তব্য করছেন! গান শুনতে ভালো না লাগলে শুনবেন না তবে এভাবে আক্রমণ করবেন না।”

ইমন আরও বললেন যে,” অর্কদীপকে আমি দীর্ঘদিন ধরেই চিনি। আমাদের গুরু এক, কিন্তু সেটা আলাদা কথা। তার নিজস্ব লড়াইটাও তো রয়েছে! আপনারা ভাবছেন ফাইনালে অর্কদীপ শুধু জিতেছে। কিন্তু আসলে গ্রান্ড ফাইনালের মঞ্চে যে ৬ জন প্রতিযোগী ছিল তারা প্রত্যেকেই বিজেতা। শুধুমাত্র সেদিনের বিচারে ১৯-২০ এর পার্থক্যে জিতেছে অর্কদীপ। আর তাকেই আপনারা এভাবে অপমান করে যাচ্ছেন, তার মনের অবস্থাটাও একবার দেখুন!” আর এইদিন গায়িকা ১৫ মিনিটের জন্য ফেসবুক লাইভ এসে, লাইভটি শেষ করার আগে এও বলেন যে,” নতুন যে সমস্ত ছেলেমেয়েরা গান করছে তাদের পাশে দাঁড়ান। শিল্পীদের সন্মান জানান, ভদ্রতা দেখান। দেখবেন সমাজটা আরো অনেক সুন্দর হয়ে উঠবে”।

আরও পড়ুন

ভাইরাল ভিডিও

⚡ Trending News

আরও পড়ুন