আমিরের প্রথম স্ত্রীয়ের সহকারীর সঙ্গে প্রেম, তারপর লিভ-ইন, ১৬ বছরের সুখের সংসার আমির-কিরণের

কে বলেছে বলিউডে পারফেক্ট জুটি নেই? জানা না থাকলে জেনে নিন, কিরণ রাও এবং আজকের দিনের জনপ্রিয় অভিনেতা আমির খান চুটিয়ে সংসার করছেন ১৬ বছর ধরে। কিরণ ছিলেন একাধারে আমির এর প্রথম স্ত্রীর সহকারী সাথে একজন প্রযোজক এবং স্ক্রিপ্ট রাইটার।
সালটা তখন ১৯৭৩ বেঙ্গালুরুতে জন্ম হয় কিরণ এর। বেঙ্গালুরুতে জন্ম হলেও ছোটবেলা তিনি কাটিয়েছেন কলকাতাতেই। তারপর ১৯৯২ সালে কলকাতা ছাড়েন মা-বাবার সাথে, মুম্বই গিয়ে ১৯৯৫ সালে কলেজ সোফিয়া কলেজ ফর ওম্যান থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি প্রাপ্ত হোন।

মুম্বই এসে কিরণ অনেক নামী-দামী পরিচালকদের সাথে যোগাযোগ করেন তবে সেই ভাবে কেউ তাকে খুব একটা পাত্তাই দেয়নি। পরে এক পরিচিত মানুষের কাছে জানতে পারেন আশুতোষ গোয়ারিকর এর কথা, তিনি একটি ছবির জন্য সহ-পরিচালক খুঁজছেন, ওখানেই কাজ পেয়ে যান কিরণ, আর ছবির নাম ছিল ‘লগান’ আর শুটিং এর প্রায় যাবতীয় দায়িত্ব ছিলো কিরণ এর উপর।

কিরণ এর কাজ পছন্দ হয় প্রায় সবারই এবং কিরণকে কাজেও রেখে দেন পরিচালক আশুতোষ। আর সেখানেই প্রথম পরিচয় কিরণ এর সাথে আমির এর। কথা হতো না খুব একটা কারুর, তখন কিরণ আমির এর স্ত্রী রিনারও কাজ করছেন তিনি। দ্বিতীয়বার আবারো পরিচালক আশুতোষ বাবুর একটি ছবিতে আমির কাজ করার সময় কিরণ এর সাথে একটা বন্ধুত্বের সম্পর্ক গড়ে ওঠে তাদের মধ্যে। সেই সময় সবেই বিবাহ বিচ্ছেদ হয়েছে আমিরের ১৪ বছরের দাম্পত্য জীবনের। দুই সন্তান এবং স্ত্রী কে ছেড়ে থাকার মতো খারাপ সময়ে পাশে পান কিরণকে।

সেই তখন থেকে আজও কিরণকে পাশে পান তিনি। বন্ধুত্ব কখন যে প্রেমে পরিনত হয়েছে সেটা বুঝতে আমির-কিরণ ও পারেনা। আস্তে আস্তে তারা লিভ ইন করতে শুরু করেন টানা তিন বছর তারা লিভ ইন এ থাকার পর তারা ২০০৫ সালে বিয়ে করেন তারা। অবশেষে ২০১১ সালে আমির এর এক পুত্র সন্তানের জন্ম দেন কিরণ তার নাম আজাদ।

আরও পড়ুন

ভাইরাল ভিডিও

⚡ Trending News

আরও পড়ুন