বিনোদন

নতুন বছরের শুভেচ্ছা বার্তা “সুশান্তের”! নেটদুনিয়ায় তৈরি অবাক কাণ্ড

2019 সাল ছিল বলিউডের অন্যতম অভিশপ্ত বর্ষ। কারণ ওই বছর পৃথিবী থেকে বিদায় নিয়েছিলেন অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত। মুম্বাইয়ের বান্দ্রায় নিজের বিলাসবহুল ফ্ল্যাটে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন অভিনেতা। এই তরুণ অভিনেতার মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ হয়ে পড়েন তার অনুরাগীরা। তবে নতুন বছরে প্রয়াত অভিনেতার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে ভেসে এলো নববর্ষের শুভেচ্ছা। যা দেখে খানিকটা অবাক হয়ে গিয়েছে নেটিজেনরা। অবশ্য বেশ খানিকটা সময় পরে এর আসল রহস্য উদঘাটন করতে পারলেন তারা।

জি টিভির পবিত্র রিস্তা ধারাবাহিকের মধ্য দিয়ে অভিনয় হাতেখড়ি হয় সুশান্তের। পড়াশোনায় অসম্ভব মেধাবী সুশান্ত চাইতেন বড় হয়ে একজন নামী অভিনেতা হতে। নিজের অভিনয় দক্ষতা আর হ্যান্ডসাম লুকের জেরে খুব সহজেই বলিউডে প্রতিষ্ঠা পেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু একসময় নেপোটিজম তাকে সামনে এগোতে বাধা দেয়। স্বজনপোষণের ফলে নানান ছবি থেকে বাদ পড়ে সুশান্তের নাম। সেই সঙ্গে তার তৎকালীন প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তীর সঙ্গে মানসিক দ্বন্দ্ব চলছিল সুশান্তের। নিয়মিত সুশান্তকে ড্রাগ সরবরাহ করতেন রিয়া সেই সঙ্গে তার কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ অর্থ হস্তগত করেন তিনি। সুশান্তের মৃত্যুর সঠিক তদন্ত করার দাবি জানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় একপ্রকার বিক্ষোভে ফেটে পড়েন সাধারণ মানুষ।

তারপর অনেক সময় কেটে গেছে কিন্তু অভিনেতাকে মন থেকে বলতে পারেনি তার অনুরাগীরা। গত বছর মৃত অভিনেতার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে তার একটি ছবি ভেসে ওঠে। খানিকটা হতচকিত হয়েছিলেন তার ফ্যান ফলোয়ার্স। তবে কি কোন আধিভৌতিক কান্ড। এবারেও অভিনেতার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে নিউ ইয়ারের শুভেচ্ছা বার্তা দিয়ে পোস্ট করা হলো। নেটিজেনদের মধ্যে সন্দেহ সৃষ্টি না করে সুশান্তের দিদি শ্বেতা সিং রাজপুত জানান তিনি নিজেই ভাইয়ের হয়ে এই পোস্ট করেছেন। সকলে নতুন বছর খুব ভালো কাটুক। সেই সঙ্গে আরও একবার ভাইয়ের মৃত্যুর সঙ্গে জড়িতদের যথাযোগ্য শাস্তির দাবি তুলেছেন দিদি।

স্বাভাবিকভাবেই এই পোস্ট দেখে আবেগঘন হয়ে পড়েছে নেটিজেনরা। প্রিয় অভিনেতার মৃত্যু যেন কিছুতেই বিশ্বাস করে দিতে পারছেন না তারা। তাই দীর্ঘ দিন পর ফেসবুকে এমন পোস্ট দেখে অনেকেই নিজেদের কান্না চেপে রাখতে পারেননি। কেউ কেউ কমেন্ট করেছেন অনবরত কেঁদে চলেছি। কেউ বলছেন কেন এভাবে পৃথিবী থেকে চলে গেলে? আবার কারও মতে নিজের মৃত্যুর সঠিক প্রদর্শনীতে বারবার ফিরে আসেন সুশি।

Related Articles