চলতি সপ্তাহে টিআরপি তালিকার প্রথম দশে জায়গা কর"/>
বিনোদননিউজ

“ধারাবাহিক পাল্টানো”! ক্ষুব্ধ দর্শক মহল

চলতি সপ্তাহে টিআরপি তালিকার প্রথম দশে জায়গা করে নিতে পারেনি খরকুটো। একসময় স্টার জলসা মানেই সন্ধ্যে সাতটা। কারণ ওই সময় টিভির সামনে চা টা নিয়ে বসে পড়তেন সিরিয়াল প্রেমীরা। সৌগুণ জুটির ম্যাজিক দেখার জন্য উদগ্রীব হয়ে থাকতেন তারা। কিন্তু সে সব এখন অতীত। ঘ্যানঘ্যানানি প্যানপ্যানানি গল্পে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছেন দর্শকরা। তাই চ্যানেল কর্তৃপক্ষ খরকুটো কে ভেঙে দিয়ে “আলতা ফড়িং” কে নিয়ে এসেছে তার জায়গায়। তবে কি বন্ধ হয়ে যাচ্ছে খরকুটো?

একেবারে শুরুর দিন থেকেই কিস্তিমাত করেছিল খরকুটো। অভিনেত্রী তৃণা সাহা এবং কৌশিক রায় অভিনীত এই ধারাবাহিক দর্শকদের মন জয় করেছিল কিছুদিনের মধ্যেই। শুধুমাত্র নায়ক নায়িকা নয় ধারাবাহিকের অন্যান্য অভিনেতা-অভিনেত্রীদের সাবলীল অভিনয় খুব সহজেই মানুষের মন ছুঁয়েছিল। কিন্তু বাড়ির এক সদস্য মিষ্টি বৌদির মা হওয়ার পর থেকেই শুরু হয়েছে গুনগুনের ন্যাকামি। সেই ন্যাকামি পাতে নেওয়ার যোগ্য নয় বলে মনে করেন দর্শকরা। তাদের দাবি উঠেছিল বন্ধ করতে হবে এই গাঁজাখুরি সিরিয়াল। ধারাবাহিকে চিত্রনাট্যকার লীনা গঙ্গোপাধ্যায় এর উপর বেদম ক্ষেপেছিলেন দর্শক মহল। এরপর গুনগুনকে উপেক্ষা করে অনন্যা অর্থাৎ তিনি দিদির সঙ্গে সৌজন্যর মাখামাখি প্রেম , এসব খুব একটা সহ্য করতে পারছিলেন না খরকুটো প্রেমীরা। তাই স্টার জলসা কে প্রকার বয়কট করার সিদ্ধান্ত নেন তারা।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Star Jalsha (@starjalsha)

ধারাবাহিকে শীতের মরসুমে বাড়ির সকলে মিলে কার্শিয়াং ট্রিপে গিয়েছিলেন। পরিচালক ভেবেছিলেন হয়তো বা মুখার্জি পরিবারের মিলনে কিছুটা মন ভরবে দর্শকদের। কিন্তু এবারেও প্রত্যাশিত সাফল্য অধরা থেকে গেল। খরকুটো কে একপ্রকার দূরে ঠেলে দিয়েছেন দর্শকরা। তাই স্টার জলসা কতৃপক্ষ সিদ্ধান্ত নিয়েছে নতুন ধারাবাহিক আনার তাও আবার খরকুটোর স্লটে। আম্পানে ভেসে যাওয়া একটা অসহায় পরিবারের গল্প নিয়ে আসছে নতুন ধারাবাহিক “আলতা ফড়িং”। মুখ্য চরিত্রে রয়েছেন কালার্স বাংলা ধারাবাহিক “মৌ এর বাড়ি”র অভিনেত্রী তথা নৃত্যশিল্পী খেয়ালী। অন্যদিকে তার বিপরীতে অভিনয় করছেন শ্রীময়ী ধারাবাহিক দিঠির স্বামী তথা অর্ণব। প্রোমো দেখে বেশ মনে ধরেছে দর্শকদের। নতুন কিছু আসতে চলেছে বলেই মনে করছেন তারা। কিন্তু এখনি শেষ হচ্ছেনা খরকুটো। মোহরের নত তাকে টেনে দুপুর বেলা আড়াইটায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Star Jalsha (@starjalsha)

এতে আবার বেজায় চটেছেন দর্শকদের একাংশ। তাদের দাবি একেবারেই বন্ধ করে দিতে পারছেন না? কেউ কেউ বলছেন আবারও বয়কট করা হবে স্টার জলসা কে। অনেকে আবার রসিকতা করে দেখেছেন শুধু আম্পান কেন আইলা, ফনি চোখে দেখতে পাননি? তবে নতুন বছরে স্লট পরিবর্তন করে কতটা লাভের মুখ দেখতে পায় জলসা পরিবার সেটাই দেখার।

Related Articles