×
বিনোদনভাইরাল ভিডিও

চতুর্থ সন্তানের বাবা সইফ, ২৫ বছরের ছোট একরত্তি ভাইকে প্রচুর গিফট দিলেন নবাব কন্যা সারা, ভাইরাল ভিডিও

Advertisements
Advertisements

সম্প্রতি মুম্বইয়ের ব্রিচ ক্যান্ডি হাসপাতালে পুত্রসন্তানের জন্ম দিলেন অভিনেত্রী করিনা কপূর খান। গত বছর আগস্ট মাসে এই দম্পতিই নতুন অতিথির আগমনের কথা জানিয়েছিলেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। এই বছর আরও এক পুত্রসন্তানকে এ জগতের আলো দেখালেন করিনা ও সইফআলি খান। চতুর্থবারের জন্য বাবা হলেন নবাবপুত্র সইফ আলী খান। আর তাই সইফ আলি খানের প্রথম সন্তান, সারা আলি খান তার এই ছোট সদ্যোজাত ভাইকে দেখার জন্যে সঙ্গে প্রচুর উপহারও নিয়ে উপস্থিত হলেন তার পিতা সইফ আলি খানের বাড়িতে।

Advertisements

প্রসঙ্গত, আমরা সকলেই জানি যে, ১৯৯১ সালে সইফ আলি খান প্রথম অমৃতা সিংয়ের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়ে ছিলেন এবং তারপর
১৯৯৫ সালে জন্ম হয় তাদের প্রথম সন্তান সারার। আর বর্তমানে সারার বয়স হল ২৫ বছর। এরপর তাদের দ্বিতীয় সন্তান ইব্রাহিম আলি খাণের জন্ম হয় ২০০১ সালে। বর্তমানে ইব্রাহিমের বয়স ১৯ বছর। খবর সূত্রে জানা যায় যে,সইফ-অমৃতা বিবাহ বিচ্ছেদ হয়েছিল ছেলের জন্মের ঠিক তিন বছরের মধ্যে। তাদের ডিভোর্স এরপর ছেলেমেয়েকে নিয়ে একাই থাকতেন অমৃতা এবং তিনি একাই বড় করে তোলেন তাদের সন্তানদের। সইফ এর সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদ এর পর আর আর কোনো দিনও বিয়েও করেননি অমৃতা।

কিন্তু, ২০১২ সালে আবার ও বিয়ের করেন সইফ আলী খান। তিনি এবার করিনা কাপুররে সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়ছিলেন। এবং ২০১৬ সালে ২০ ডিসেম্বর জন্ম হয় সইফ ও করিনার প্রথম সন্তান তৈমুর আলি খানের। তার বয়স এখন মাত্র চার। খবর সূত্রে জানা যায়, গত ২১ ফেব্রুয়ারি আবার ও দ্বিতীয় বারের জন্য মা হলেন করিনা কাপুর খান। আর এই ছোট্ট খুদেকে দেখতে সইফ আলী খানের বাড়িতে গেলেন বড় দিদি সারা।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Viral Bhayani (@viralbhayani)


সইফ আলী খানের দ্বিতীয় স্ত্রী এবং বলিউড এর অন্যতম অভিনেত্রী করিনার সঙ্গে সারা এবং ইব্রাহিমের সম্পর্ক বেশ মধুর বলেই চলে। তবে বাবা সইফ আলী খান, করিনার ও সারা-ইব্রাহিমকে তৈমুর এর সঙ্গে কোয়ালিটি টাইম কাটাতে বহু বার দেখেছি আমরা। বলতে গেলে সারা তার ইনস্টাগ্রামে মাঝে মধ্যেই তার দুই ভাই ইব্রাহিম ও তৈমুর এর সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন এই ভিডিও ও ছবি আপলোড করে থাকেন। তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় সকলেই এই নতুন অতিথির আগমনের খবরে তাদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

Advertisements