সোনার গয়না ছিল কমন, এছাড়াও আরেক বিশেষ ধাতুর গয়না পড়তেন বাপ্পি লাহিড়ি

Bappi Lahiri

বুধবার ভোরে মুম্বইয়ের একটি বেসরকারি হাসপাতালে অবস্ট্রাকটিভ স্লিপ অ্যাপনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত হয়েছেন ‘ডিস্কো কিং’ বাপ্পী লাহিড়ী (Bappi Lahiri)। শোকস্তব্ধ সমগ্র দেশ। কিন্তু সব কিছুর মধ্যেও বারবার উঠে আসছে বাপ্পীর স্বর্ণ প্রীতির কথা। গত বছর ‘ইন্ডিয়ান আইডল’-এ বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত হয়ে বাপ্পী একজন প্রতিযোগীকে সোনার চেন উপহার দিয়েছিলেন।

ভারতের ‘গোল্ড ম্যান’ হিসাবে পরিচিত বাপ্পী পরে থাকতেন প্রচুর সোনার গয়না। সবসময়ই বলতেন, সোনা তাঁর কাছে ভগবানের সমান। একটি সাক্ষাৎকারে বাপ্পী খোলসা করেছিলেন তাঁর সোনার গয়না পরার কারণ। এই ক্ষেত্রে বাপ্পীর আইডল ছিলেন ইউরোপিয়ান রকস্টার এলভিস প্রেসলি। এলভিসও পরতেন সোনার গয়না। তাঁকে দেখে বাপ্পী ঠিক করেছিলেন, তিনিও নিজের পায়ে দাঁড়িয়ে একদিন সোনার গয়না পরবেন। আসলে তৎকালীন সময় মধ্যবিত্ত বাঙালি পরিবারের ছেলেদের অনুমতি ছিল না গয়না পরার। বাপ্পীর ক্ষেত্রেও তার অন্যথা হয়নি। তবে পরবর্তীকালে এই মিথ ভেঙে সোনার গয়না, রঙিন সানগ্লাস ও ডিপ রঙের পোশাকে বাপ্পী তৈরি করেছিলেন তাঁর ফ্যাশন স্টেটমেন্ট।

Bappi

View this post on Instagram

 

A post shared by Bappi Lahiri (@bappilahiri_official_)


সোনার গয়নাকে অত্যন্ত পয়া হিসাবে মানতেন বাপ্পী। এটাও তাঁর বাঙালি মনন। বাঙালি মতে, সোনা মা লক্ষ্মীর রূপ। ফলে বাপ্পীও এই চিন্তাধারার ব্যতিক্রম ছিলেন না। তবে কেরিয়ারের প্রথম দিকে সোনার গয়না পরলেও পরবর্তীকালে ‘লুমিনেক্স ইউএনও’ নামের একটি বিশেষ ধাতু দিয়ে তৈরি গয়না পরতেন বাপ্পী। সোনার গয়না প্রস্তুতকারী ও বিনিয়োগকারীদের জন্য এটি একটি অত্যন্ত মূল্যবান বিকল্প। ‘লুমিনেক্স ইউএনও’ ধাতুটি তৈরি হয় সোনা, প্ল্যাটিনাম ও রূপো দিয়ে।
একটি সাক্ষাৎকারে বাপ্পী এই ধাতু প্রসঙ্গে বলেছিলেন, ধাতুটির কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই। এই কারণে তিনি নিশ্চিন্তে এই ধাতুর প্রচার করতে চান।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Bappi Lahiri (@bappilahiri_official_)