Saturday, January 22, 2022

চুপিসারে বিয়ে সেরে ফেললেন অরুনিতা ও পবনদীপ, নেট দুনিয়ায় ভাইরাল ছবি

এক ঝলকে দেখে ভাবতেই পারেন হয়তো এবার সকলের প্রিয় অরুদ্বীপ (Arudeep) এবার বিয়ের পিঁড়িতে! হ্যাঁ, এমনই এক অবাক করা ছবি বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে নেটমাধ্যমে। সনি টিভির (Sony TV) অন্যতম সংগীত রিয়ালিটি শো ইন্ডিয়ান আইডলের দৌড়াতে এখন পবনদ্বীপ রাজন (Pawandeep Rajan) এবং অরুনিতা কাঞ্জিলাল (Arunita Kanjilal) সকলের প্রিয় জুটি। চলতি বছরের গত আগস্ট মাসে শেষ হয়েছে ইন্ডিয়ান আইডলের পথচলার সফর। রিয়ালিটি শো শেষ হয়ে গেলেও এই জুটির জনপ্রিয়তায় বিন্দুমাত্র ভাঁটা পড়েনি। বরং দিন দিন লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে তাঁদের জনপ্রিয়তা।


অরুনিতা কাঞ্জিলাল এবং পবনদ্বীপের জনপ্রিয়তা বর্তমানে দেশ ছেড়ে পাড়ি দিয়েছে সুদূর বিদেশেও। ইতিমধ্যেই সেরে ফেলেছেন লন্ডন এবং কানাডার মত শহরে লাইভ পারফরম্যান্স। তবে এর সব কিছুর মাঝেই সংবাদমাধ্যমের লাইমলাইট কেড়েছে অরুনিতা কাঞ্জিলাল এবং পবনদ্বীপ রাজনের বিচ্ছেদের খবর। নানারকম সূত্র অনুযায়ী শোনা গিয়েছে, অরুনিতা কাঞ্জিলালের পরিবারের তরফ থেকে কেউই চাননা তাঁদের মেয়ে পবনের সাথে রোমান্টিকভাবে স্ক্রিন শেয়ার করুক। সেই কারণেই সম্প্রতি প্রকাশ্যে আসা মিউজিক ভিডিও ফুরসত (Fursat) থেকে দূরে সরে এসেছেন অরুনিতা কাঞ্জিলাল (Arunita Kanjilal)। এরই মধ্যে ভাইরাল হয়েছে তাদের দুজনের বিয়ের ছবি।

অরুনিতা কাঞ্জিলাল এবং পবনদ্বীপ রাজনের ভাইরাল হওয়া সেই বিয়ের ছবি অনুযায়ী দেখা গিয়েছে, একেবারে বিয়ের সাজে রয়েছেন দুজনে। পবনদ্বীপের পরনে রয়েছে দুধে আলতা কালারের শেরওয়ানি, মাথায় পাগড়ি, গলায় মালা। ওদিকে অরুনিতার পরনে রয়েছে দুধে আলতা কালারের লেহেঙ্গা এবং গোলাপ ফুলের মালা। সাথে মানানসই স্টোন বসানো নানারকম গয়না ও। বারবার পবনদ্বীপ এবং অরুনিতা তরফ থেকে তাঁদের সম্পর্ককে নিছকই বন্ধুত্বের নাম দেওয়া হলেও কোনভাবেই তা মানতে নারাজ নেটদুনিয়া। আর সেই জন্যই তাঁদের বিয়ের এডিটেড ছবি আপলোড করা হয়েছে সামাজিক মাধ্যমে। বলা বাহুল্য, অরুনিতা এবং পবনের সমস্ত ভক্তরাই তাঁদেরকে দেখতে চান এই রূপে।

তাঁদের এই বিশেষ সম্পর্কের প্রসঙ্গে একবার সংবাদমাধ্যমের কাছে পাবন্দি প্রকাশ্যে জানিয়েছিলেন, ” আমরা সকলেই একসাথে অনেকটা সময় কাটিয়েছি, যার জন্য আমাদেরকে আলাদা করা সম্ভব নয়। আমার মনে হয় এটা প্রত্যেকের ক্ষেত্রেই হয়ে থাকে যখন বন্ধুত্ব অনেক বেশি হয়ে যায়। কিন্তু আমার মনে হয় কিছু সময় পর মানুষ ঠিক বুঝবেন যে আমাদের মধ্যে কোনও সম্পর্ক নেই। এই মুহূর্তে আমরা সকলেই ছোটো এবং ক্যারিয়ারের দিকে ফোকাস করতে চাই। বাকি সব কিছুর জন্য অনেক সময় আছে। কিন্তু এই সব কিছুর উর্ধে একটাই কথা বলব, আমি চাই আমাদের বন্ধু যেন বার্ধক্য অব্দি টেকে।”

⚡ Trending News

আরও পড়ুন