Wednesday, December 1, 2021

‘নাগাঁজা যে একপ্রকার মাদক জানতাম’, বললেন অনন্যা পান্ডে

একের পর এক জামিনের আবেদন নামঞ্জুর হচ্ছে। আরিয়ান খান (Aryan Khan)-এর কঠিন সময়ে তাঁর হোয়্যাটসঅ্যাপ চ্যাট নিয়েও চলছে তোলপাড়। আরিয়ান সংক্রান্ত কেসে চাঙ্কি পান্ডে (Chunky Pandey)-এর কন্যা ও অভিনেত্রী অনন‍্যা পান্ডে (Ananya Pandey)-কে বৃহস্পতিবার এনসিবি দপ্তরে তলব করা হয়েছিল। চাঙ্কিকে নিয়ে সপ্রতিভ ভাবেই অনন্যা এনসিবি দপ্তরে এসেছিলেন। এনসিবি-র মুম্বই জোনাল ডিরেক্টর সমীর ওয়াংখেড়ে (Sameer Wankhede) জেরা করেছেন অনন্যাকে।

আরিয়ানের মোবাইল চ্যাট থেকে উঠে এসেছে অনন্যার নাম। এনসিবি-র তরফে জিজ্ঞাসাবাদের সময় এই চ্যাটের কথাও উঠে আসে। আরিয়ানের সঙ্গে গ্রেফতার হওয়া ব্যক্তিদের অনন্যা চেনেন কিনা, তা তাঁর কাছে জানতে চাওয়া হয়েছে। দুই ঘন্টারও বেশি সময় ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় অনন্যাকে। আরিয়ান ও অনন্যার হোয়্যাটসঅ্যাপ চ্যাট অনুসারে তাঁরা নাকি মাদক নিয়ে কথা বলেছেন। শৈশবের বন্ধু আরিয়ান ও অনন্যা মজার ছলে কথা বলেছিলেন। অনন্যা একটি মজার কথা বলেছিলেন। তার প্রত্যুত্তরে আরিয়ান বলেছিলেন, এবার তাঁকে গাঁজা খেতে হবে, অনন্যাই যেন গাঁজার ব্যবস্থা করে দেন। অনন্যা মজা করে বলেছিলেন, তিনি গাঁজার ব্যবস্থা করে দেবেন।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Viral Bhayani (@viralbhayani)

এনসিবি-র জেরার মুখে অনন্যাও একই কথা জানিয়েছেন। শুক্রবার টানা চার ঘন্টা জেরা করা হয় অনন্যাকে। মূলতঃ হোয়্যাটসঅ্যাপ চ্যাট সম্পর্কে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। চাঙ্কিকে বসে থাকতে হয়েছে সমীরের দপ্তরের বাইরে। অনন্যা জানিয়েছেন, গাঁজা নিয়ে আলোচনা করলে তাতে মাদক সংক্রান্ত কেসে তাঁদেরলদিকে আঙুল উঠতে পারে, তা তাঁদের জানা ছিল না। তাছাড়া গাঁজা যে এত ক্ষতিকর মাদক তা তাঁদের ধারণা ছিল না। মজার ছলে করা ওই হোয়্যাটসঅ্যাপ চ্যাট এক বছরের পুরানো।

বৃহস্পতিবার সকালে অনন্যার বান্দ্রার বাড়িতে তল্লাশি চালান এনসিবি-র আধিকারিকদের একাংশ। এরপর দুপুরে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য অনন্যাকে ডেকে পাঠানো হয় এনসিবি-র দপ্তরে। তবে বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার দুই দিনই অনন্যা জানিয়েছেন, তিনি কোনো প্রকার মাদক সেবন করেন না। তাছাড়া আরিয়ানকে তিনি কোনোদিন গাঁজার যোগান দেননি।

⚡ Trending News

আরও পড়ুন