Wednesday, December 1, 2021

১৬ বছর বয়সেই সানি লিওনি বুঝতে পারেন যে তিনি নারী-পুরুষ উভয়ের প্রতি আকৃষ্ট

করণজিৎ কৌর বোরা নামটার সাথে অনেকেই পরিচিত নন। তবে সানি লিওনির নামের সাথে বেশিরভাগ মানুষই পরিচিত। সানি লিওনি যিনি আজকের দিনে বলিউডের একজন স্বনামধন্য অভিনেত্রী। ১৯৮১ সালে কানাডায় জন্ম হয় সানি লিওনির। ইতিমধ্যেই করণজিৎ কৌর বোরা নামটা প্রায় বিলুপ্ত তার। পর্ন তারকা হবার পর থেকেই তিনি সানি লিওনি নামেই পরিচিত সকলের কাছে।
মধ্যবিত্ত পরিবারের মেয়ে সানি লিওনি। পর্ন ইন্ডাস্ট্রিতে জনপ্রিয়তা অর্জন করার পরে তিনি এখন একজন বলিউড অভিনেত্রী।

ইতিমধ্যেই বেশ কিছু সিনেমা তিনি করেছেন। ৯ বছর আগে তিনি পা রাখেন বলিউডে। পূজা ভট্টের সিনেমা জিসম ২ এর হাত ধরে তিনি বলিউডে আত্মপ্রকাশ করেন। তার পর থেকেই বহু ছবিতেই তিন অভিনয় করেছেন। তবে বেশিরভাগ পরিচিতি পান তিনি সলমন খানের ‘বিগ বস’ রিয়েলিটি শো থেকে। জিসম ২ এর পর তিনি রাগিনি এমএমএস ২, জ্যাকপট, ওয়ান নাইট স্ট্যান্ড, এবং আরও বেশ কিছু ছবিতে তিনি অভিনয় করেছেন। ধীরে ধীরে পর্ন তারকা থেকে তিনি হয়ে উঠেছেন এখন একজন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী এবং সঞ্চালক।

তবে তার এই জার্নিটা খুব একটাও সোজা ছিল না। প্রথম প্রথম তার পরিবারের সদস্যরা জানতেন না তার পর্ন ইন্ডাস্ট্রির কাজের কথা। তার মা বাবা খুশি ছিলেন তার উপার্জনে। তবে ২০০৩ সালে পেন্টহাউজ পত্রিকায় তাকে ‘পেট অফ দ্য ইয়ার’ এর তকমা দেওয়া হয়েছিল। সেখান থেকেই তার পরিবারের সদস্যদের কাছে তার পেশা বিষয়ে জানতে পারেন। তার জীবন নিয়ে সম্প্রতি একটি ওয়েব সিরিজ বানানো হয়। সেই ওয়েব সিরিজে তার জীবনের বেশ কিছু অধ্যায় তুলে ধরা হয়। এই ওয়েব সিরিজের বিষয়ে তিনি জানিয়েছেন, আমার অতীতের দুঃসহ যে সময় গুলো তার কেটেছে সেই দিন গুলো আর ফিরে তাকিয়ে দেখতে চান না সানি। তার পেশার জন্য তাকে বহু কটূক্তি শুনতে হয়েছে সকলের কাছে, দেশব্যাপী মানুষ তার পোশাক নিয়েও কথা শোনাতে তাকে ছাড়েননি। খুব অল্প বয়সেই সানি বুঝে গেছিল সে ছেলে ও মেয়ে দুজনের প্রতিই আকৃষ্ট। মাত্র ১৬ বছর বয়সেই তিনি তার জীবনের এই কথাটি জানতে পারেন।

সানি লিওনির স্বামী ড্যানিয়েল ওয়েবারের সাথে তার পরিচয় এর পর থেকেই তিনি তার সাথে কাজ করতে শুরু করেন। জীবন এর সবথেকে খারাপ সময়ে একমাত্র পাশে পেয়েছেন সানি নিজের স্বামী
ড্যানিয়েলকে। সানি লিওনিকে কোন দিনের জন্য ছেড়ে তিনি যাননি সাথে তাকে অসন্মান করেননি কোনদিন। তারা নিজেরা নিজেদের একটি সংস্থা খোলেন। সংবাদ মাধ্যমের একটি সাক্ষাৎকারে সানি জানান যখন তার ১৮ বছর বয়স ইন্ডাস্ট্রির এক গায়ক এর কাছে শারীরিক হেনস্থার শিকার হয়েছেন তিনি। তখন তিনি একদম নতুন ইন্ডাস্ট্রিতে। তাই সেভাবে কিছুই বলে উঠতে পারেননি তিনি। সানি এও বলেন আমি নিজে যখন পর্ন প্রথম দেখেছিলাম আমার কাছে খুবই ভয়ঙ্কর একটা কাজ মনে হয়েছিল। সানি বলেন, কোন মানুষ নিজেই জানেন না যে ভবিষ্যতে কে কোন পেশা বেছে নেবেন। তাই তিনিও যখন প্রথমবার পর্ন দেখেন তার কাছে সেটা ভয়ানক লেগেছিল।

২০১৮ সালে সানি ও তার স্বামী দুজনে একটি শিশু কন্যাকে দত্তক নিয়েছেন। মেয়ের নাম দিয়েছেন নিশা কৌর ওয়েবার। এই মুহুর্তে ইন্ডাস্ট্রির খুব খুশি দম্পতি তারা। সানি নিজে সমাজ সেবা মূলক কাজের সাথে যুক্ত। অতিমারীর সময় প্রায় ১০ হাজার পরিযায়ী শ্রমিকদের খাওয়ারের ব্যবস্থা করেছেন তিনি। ইতিমধ্যে তিন সন্তানের মা সানি। প্রথম থেকেই সংসারের প্রতি তার ভীষণ দায়িত্ব। এখন তিন সন্তান ও স্বামীকে নিয়ে সুখে সংসার করছেন সানি লিওনি।

⚡ Trending News

আরও পড়ুন