Wednesday, December 1, 2021

প্রতিবেশীদের হেনস্থার শিকার হলেন টলি অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র

নেট জনতার সঙ্গে যোগাযোগ করে মনের কথা জানালেন শ্রীলেখা মিত্র। প্রতিবারের মতন এদিন তিনি ফেসবুক লাইভে আসেন, প্রতিবারের মতন এইবারও মনের কথা প্রকাশ করলেন তিনি। তবে এবারে আর হাসি মুখে Facebook live করেননি। হাউমাউ করে কেঁদে তিনি সকলকে জানিয়ে দেন বাড়ি ছাড়ার কথা জানান।

কী অভিযোগ অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্রের? কেন কাদঁছেন? কারা তাকে ঘর ছাড়া করতে চাইছেন?

শ্রীলেখা মিত্র বরাবর কুকুর পছন্দ করেন। তার তত্ত্বাবধানে রাস্তার বহু কুকুর রয়েছে। তিনি বিদেশি কুকুর যেমন পছন্দ করেন তেমনই রাস্তার কুকুরের বা দেশী কুকুরের তিনি সেবা যত্ন করেন। কিন্তু, তার ফ্ল্যাটের মানুষ সেই ব্যাপারটি সহ্য করতে পারছে না। তাদের অভিযোগ অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে। মানসিক অত্যাচারের কথা এদিন অভিনেত্রী বলেন এবং এও জানান তার কুকুরদের বিষ খাইয়ে মেরে ফেলবে বলে জানান ওই ফ্ল্যাট বাড়ির অন্যান্য মানুষেরা। দেখুন অভিনেত্রীর প্রথম লাইভ ভিডিও।

অভিনেত্রীর বাড়িতে থাকেন তার মেয়ে একজন পরিচারিকা এবং পোষ্য কুকুর ছানা, কিছু দিন আগে তিনি তার বাবাকে হারিয়েছেন। তাই শোক তার মনে এখনও তীক্ষ্ণ। পিতৃ শোক থেকে বের হতে না হতেই দিনের পর দিন কুকুরদের নিয়ে নানান মানসিক অত্যাচারের সন্মুখীন হন। ফ্ল্যাটের লোকদের দাবী অভিনেত্রীর কুকুর একটি মেয়েকে কামড় দেয়, এরপরেই অভিনেত্রীর সঙ্গে চরম বাকবিতণ্ডা এবং হাতাহাতিতে পৌঁছায় ফ্ল্যাটের অন্যান্য সদস্যরা। এই ব্যাপারে, শ্রীলেখার দাবী, তার কুকুর কাউকে কামড়াতে পারে না এবং সমস্ত কুকুরকে তিনি ভ্যাকসিন দিয়ে রেখেছেন। দেখুন অভিনেত্রীর দ্বিতীয় লাইভ ভিডিও।

এবারে, অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্রের পরিস্কার সিদ্ধান্ত যে তিনি বাড়ি ছাড়বেন। তার কথায় রক্ত জল করা টাকায় তিনি এই ফ্ল্যাট কেনেন, কিন্তু চারিদিকের পরিবেশ এতটাই নিম্নমানের এবং অমানবিক যে তিনি তার ফ্ল্যাট আগামী দুই মাসের মধ্যে বিক্রি করে অন্যত্র চলে যেতে চান।

⚡ Trending News

আরও পড়ুন